Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ২২ জানুয়ারি, ২০১৭

প্রকাশ : শুক্রবার, ১ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৩০ জুন, ২০১৬ ২৩:৫৭
কৃষি সংবাদ
মনোসেক্স তেলাপিয়া থেকে ভাগ্য বদল
নড়াইল প্রতিনিধি

একটা সময় ছিল যখন নড়াইলের মত্স্য চাষিদের তেলাপিয়া চাষের জন্য পোনা সংগ্রহে যেতে হতো দূর-দূরান্তে। কিন্তু এখন এখানেই মনোসেক্স  তেলাপিয়ার পোনা উৎপাদন হচ্ছে। আর এতে ভাগ্য বদল হচ্ছে উৎপাদকদের। ভাগ্য বদলকারীদের মধ্যে অন্যতম মত্স্য চাষি ফায়জুর রহমান। তিনি বাংলাদেশ মত্স্য গবেষণা ইনস্টিটিউট থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে ২০১০ সালে শহরতলির দুর্বাজুড়ি এলাকায় তিন একর জমিতে মনোসেক্স তেলাপিয়ার হ্যাচারি প্রতিষ্ঠা করেন। এতে সাফল্য আসে প্রথম বছরেই। সেই থেকে তাকে আর পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি। গত বছর উৎপাদন হয়েছে ৫০ হাজার পোনা। চলতি বছর উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ১ কোটি। হ্যাচারি স্থাপনের মাধ্যমে ফায়জুর রহমান একদিকে নিজে আর্থিকভাবে লাভবান হচ্ছেন, অন্যদিকে অবদান রাখছেন দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে। ফায়জুর রহমান বলেন, ‘প্রথম দিকে বিভিন্ন ব্যবসা করে অনেক টাকা নষ্ট করে ফেলি। পরে একজন মত্স্য কর্মকর্তার পরামর্শে ময়মনসিংহে বাংলাদেশ মত্স্য গবেষণা ইনস্টিটিউট থেকে মত্স্য চাষের ওপর প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে এ মত্স্য খামার করি। এরপর আমাকে আর ফিরে তাকাতে হয়নি। মনোসেক্স তেলাপিয়া লোনা পানি ছাড়াও যে কোনো পানি, মজা পুকুরে চাষ করা যায়। ’ সদর উপজেলা সহকারী মত্স্য কর্মকর্তা রাজিব আহমেদ বলেন, ‘নড়াইলে  মনোসেক্স তেলাপিয়ার পোনা উৎপাদনে বিপ্লব ঘটেছে। অল্প খরচে অধিক মুনাফা পাওয়া যায় বলে সবাই এখন মনোসেক্স তেলাপিয়া চাষ শুরু করেছেন। উৎপাদিত পোনা নড়াইল ছাড়াও গোপালগঞ্জ, যশোর, খুলনা, বরিশালসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় চলে যায়।

আর প্রতি পিস পোনা বিক্রি হয় ৬৫ থেকে ৭৫ পয়সা দামে। ’

এই পাতার আরো খবর
up-arrow