Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : সোমবার, ৪ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৪ জুলাই, ২০১৬ ০০:১৯
সন্তানদের ভুল পথে যাওয়া ঠেকাতে হবে
———— এ কে আজাদ
সন্তানদের ভুল পথে যাওয়া ঠেকাতে হবে

গুলশানে রেস্তোরাঁয় সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় বাংলাদেশি পণ্যের বিদেশি ক্রেতারা চিন্তিত বলে জানিয়েছেন দেশের ব্যবসায়ী-শিল্পপতিদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআইর সাবেক সভাপতি এ কে আজাদ। দেশের অন্যতম পোশাক রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান হা-মীম গ্রুপের এই কর্ণধার বলেছেন, গুলশানে জিম্মি ঘটনার পরপরই বিদেশি ক্রেতারা আমাদের খোঁজখবর নিচ্ছেন। তবে জঙ্গি সংকট উত্তরণ এবং ইসলামের নামে সন্ত্রাসবাদের ঝুঁকিতে থাকা আমাদের সন্তানদের ভুল পথে যাওয়া ঠেকাতে হবে। ভবিষ্যতে জঙ্গি-সন্ত্রাসবাদের মতো বিষয় নিয়ে সরকার ও জনগণকে সচেতন থাকতে হবে উল্লেখ করে বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতি ফেডারেশনের (এফবিসিসিআই) সাবেক সভাপতি এ কে আজাদ আরও বলেন, জঙ্গি-সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলায় জনসচেতনতা তৈরি করতেই হবে। কারণ জিহাদের নামে জঙ্গি-সন্ত্রাসীদের হামলা আমাদের ইসলাম ধর্ম নয়। তাই তরুণরা যেন ভুল পথে না যায় সেদিকে আমাদের সবার নজর রাখতে হবে। শিল্প মালিকদের সংগঠন বাংলাদেশ চেম্বার অব ইন্ডাস্ট্রিজের (বিসিআই) এই সভাপতি বলেন, ইতিমধ্যে জঙ্গিবাদ মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারা দেশের জেলা, থানা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডভিত্তিক কমিটি করার ঘোষণা দিয়েছেন। সরকার প্রধানের এই নির্দেশনার আলোকে জনগণকে যুক্ত করে সমন্বিতভাবে জঙ্গিবাদবিরোধী ভূমিকা নিতে হবে। দেশের প্রথম সারির শিল্পোদ্যোক্তা এ কে আজাদ মনে করেন, ঢাকায় সন্ত্রাসী হামলায় বিদেশি ক্রেতাদের মনে নেতিবাচক প্রভাব তৈরি হতে পারে। তবে এটাই প্রথম নয়। এমন ঘটনা তো মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স, বেলজিয়াম ও তুরস্কের মতো উন্নত নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থার দেশেও ঘটেছে। ফলে এটা পরিষ্কার, জঙ্গি-সন্ত্রাসবাদের এই হামলা পুরো বিশ্বকে উদ্বেগের মধ্যে নিয়ে গেছে। তাই এর সমাধানও বিশ্ববাসীকে সম্মিলিতভাবেই করতে হবে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow