Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, সোমবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : সোমবার, ১১ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১১ জুলাই, ২০১৬ ০০:১৭
নওগাঁ সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশি নিহত
নওগাঁ প্রতিনিধি

নওগাঁর ধামইরহাট উপজেলার চকচণ্ডী সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের গুলিতে গোলাপ হোসেন (৩০) নামের এক বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন। নিহত গোলাপ হোসেন ধামইরহাট উপজেলার চুণ্ডীপুর গ্রামের খায়রুল ইসলামের ছেলে।

নওগাঁর ১৪ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল আলী রেজা জানান, গতকাল ভোর রাতে উপজেলার চকচণ্ডী সীমান্তের ২৬৫ মেইন পিলার ও ২আর সাব পিলার দিয়ে ৭-৮ জন বাংলাদেশি ভারতে প্রবেশ করার চেষ্টা করে। এ সময় ভারতের ৭৫ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের চকরামপুর সীমান্তের বিএসএফ সদস্যরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই   নিহত হন গোলাপ। এ সময় অন্যরা পালিয়ে আসে। পরে নিহত গোলাপ হোসেনের লাশ বিএসএফ সদস্যরা ভারতের অভ্যন্তরে নিয়ে যায়। এ ঘটনার খবর পেয়ে নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলা ১৪ বিজিবির অধিনায়ক ভারতীয় ৭৫ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ককে পতাকা বৈঠকের আমন্ত্রণ জানান। গতকাল দুপুরে ধামইরহাট উপজেলার চকচণ্ডী সীমান্তের ২৬৩ নম্বর মেইন পিলারের কাছে বিজিবি ও বিএসএফের অধিনায়ক পর্যায়ে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। পতাকা বৈঠকে বাংলাদেশের পক্ষে নওগাঁর ১৪ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল আলী রেজা ও ভারতের পক্ষে ৭৫ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক শ্রীভাস্ত নেতৃত্ব দেন। পতাকা বৈঠক শেষে নওগাঁর ১৪ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল আলী রেজা জানান, বিএসএফের গুলিতে নিহত বাংলাদেশি গোলাপ হোসেনের লাশ এখন ভারতের অভ্যন্তরে রয়েছে।

ময়নাতদন্ত এবং আনুষ্ঠানিকতা শেষে লাশ হস্তান্তরের কথা রয়েছে। এ ঘটনার পর থেকে ধামইরহাট উপজেলার সব কটি বিজিবি সীমান্ত ফাঁড়িতে সতর্ক অবস্থা জোরদার করা হয়েছে। জেলাজুড়ে সীমান্ত এলাকায় টহল ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow