Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : বুধবার, ১৩ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১২ জুলাই, ২০১৬ ২৩:৪১
ঢাবির স্মরণিকায় ইতিহাস বিকৃতির ঘটনায় হচ্ছে তদন্ত কমিটি
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর স্মরণিকায় ইতিহাস বিকৃতির ঘটনা তদন্তে উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হচ্ছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভায় এই তদন্ত কমিটি গঠিত হবে বলে জানা গেছে।

ঢাবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকার কারণে এতদিন তদন্ত কমিটি গঠন সম্ভব হয়নি। বিশ্ববিদ্যালয় খোলার দুই-একদিনের মধ্যে তদন্ত কমিটি গঠন করে ইতিহাস বিকৃতি ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

গত ১ জুলাই ঢাবির ৯৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে প্রকাশিত ‘স্মৃতি অম্লান’ শীর্ষক স্মরণিকার একটি নিবন্ধে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানকে ‘প্রথম রাষ্ট্রপতি’ হিসেবে উল্লেখ করা হয়। বিষয়টি নজরে আসার পর সেদিনই বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ স্মরণিকাটি বাজেয়াপ্ত ঘোষণা করে এবং স্মরণিকার সম্পাদক ও ওই নিবন্ধের লেখক বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) সৈয়দ রেজাউর রহমানকে তার পদ থেকে অব্যাহতি দেয়। এ ঘটনায় সেদিন ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ এবং উপাচার্যের গাড়ি ভাঙচুর করে ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীরা। আওয়ামী লীগ সমর্থিত নীল প্যানেলের শিক্ষকদের একটি অংশের মদদে ছাত্রলীগ এই ভাঙচুরের ঘটনা ঘটিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। তবে অভিযোগ অস্বীকার করে ছাত্রলীগ ঢাবি শাখার সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেন প্রিন্স বলেন, ভাঙচুরের ঘটনায় ছাত্রলীগ জড়িত নয়। সেদিন বিক্ষুব্ধ ছাত্রদের শান্ত করে আমরাই উপাচার্যকে অক্ষত অবস্থায় তার বাসভবনে নিয়ে গিয়েছিলাম। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক এ এম আমজাদ বলেন, উপাচার্যের গাড়িতে হামলার ঘটনায় মামলা করা হবে কিনা— এ ব্যাপারে এখনো সিদ্ধান্ত হয়নি। উপাচার্যের সঙ্গে আলোচনা করে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো ছাত্র যদি সেদিন বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির সঙ্গে জড়িত থাকে তাদের বিরুদ্ধে একাডেমিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।   এদিকে ঈদের ছুটির পর গতকাল বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসসমূহ খোলা হয়েছে। গত ৩ জুলাই থেকে ১১ জুলাই পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসসমূহ বন্ধ ছিল। এ ছাড়া গ্রীষ্মকালীন ও ঈদুল ফিতর উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাসসমূহের ছুটি শেষ হবে আগামী ১৬ জুলাই। ১৭ জুলাই যথারীতি সব বিভাগ ও ইনস্টিটিউটের ক্লাস শুরু হবে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow