Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩০ মার্চ, ২০১৭

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৪ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৩ জুলাই, ২০১৬ ২৩:৫৩
অষ্টম কলাম
পশ্চিমবঙ্গে জঙ্গি সন্দেহে বাংলাদেশি গ্রেফতার
কলকাতা প্রতিনিধি

পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমান জেলার খাগড়াগড় বিস্ফোরণের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে আসামের পুলিশ ও সেনাসদস্যরা এক বাংলাদেশিকে গ্রেফতার করেছে। শহিদুল ইসলাম নামের সন্দেহভাজন ওই জঙ্গিকে গত সোমবার রাতে আসামের বরপেটা জেলার রৌমারী এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। শহিদুল ইসলাম দীর্ঘদিন আসামে পালিয়ে ছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

সোমবার রাতে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে পুলিশ ও সেনাসদস্যরা ওই এলাকার চারটি বাড়ি ঘেরাও করে শহিদুল ইসলামকে গ্রেফতার করে। একই সঙ্গে হরকাতুল মুজাহিদীনের তিন সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়। সন্দেহভাজন এই চার জঙ্গির মধ্যে শহিদুল ইসলাম বর্ধমানে বিস্ফোরণের ঘটনার অন্যতম হোতা। ২০১৪ সালের ২ অক্টোবর খাগড়াগড় বিস্ফোরণের ঘটনায় শহিদুল ইসলাম জড়িত বলে অভিযোগ রয়েছে। পুলিশও তাকে অনেক দিন ধরে খুঁজছিল।

বর্ধমানের খাগড়াগড় বিস্ফোরণ মামলায় এখন পর্যন্ত ২৮ জন আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেছে ভারতের জাতীয় তদন্ত সংস্থা (এনআইএ)। তবে এনআইএ সূত্র জানিয়েছে, এই মামলায় মোট ৩৭ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে। নয়জনের বিরুদ্ধে এখনো অভিযোগপত্র জমা দেওয়া হয়নি। গত বছরের ৩০ মার্চ প্রথমে ২১ জনের বিরুদ্ধে প্রথম অভিযোগপত্র দেওয়া হয়। ওই ২১ জনের মধ্যে চারজন বাংলাদেশি। এরপর ২৩ জুলাই দেওয়া হয় আরও ছয়জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র। আর এ বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে আরও একজনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেওয়া হয়। এই ২৮ জনের মধ্যে ১৮ জন এখন কারাগারে। ১০ জন পলাতক। এদের মধ্যে নয়জনের বিরুদ্ধে হুলিয়া জারি করা হয়েছে। ২০১৪ সালের ২ অক্টোবর বর্ধমান শহরের খাগড়াগড়ের একটি বাড়িতে বিস্ফোরণের ঘটনায় দুজনের মৃত্যু হয়। এরা হলেন শাকিল গাজী ও করিম শেখ। এনআইএ দাবি করেছে, তারা জেএমবির সদস্য ছিলেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow