Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, সোমবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : শনিবার, ১৬ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৬ জুলাই, ২০১৬ ০০:১৬
মুন্সীগঞ্জে সংঘর্ষে নিহত আরও একজন
মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি

মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় গ্রাম্য আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বিবাদমান দুই গ্রুপের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষ ও গুলি বিনিময়ের ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়ে আরও একজন নিহত হয়েছেন। এ নিয়ে ওই সংঘর্ষে নবনির্বাচিত মেম্বারসহ নিহতের সংখ্যা তিনজন। আহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২০ জনে।

গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার হোসেন্দী ইউনিয়নের টান বলাকি চরে এ ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষের সময় গুলিবিদ্ধ হয়ে হোসেন্দী

ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের নবনির্বাচিত মেম্বার মো. গোলাপ সরকার (৫০) ও তার ছোটভাই আইয়ুব আলী সরকার এবং পরে আওলাদ হোসেন (২৮) নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া গুলিবিদ্ধ হয়ে ইউনুস মিয়া (৫০), রেহেনা বেগম (৪০), নবী হোসেন (৩৫), গিয়াসউদ্দিন (৫২), মোমেন (৩৩), জহিরুল ইসলাম (৩৬)সহ ৬ জন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। অন্য আহতরাও হাসপাতালে ভর্তি আছেন। আহতদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। উল্লেখ্য, বালুমহাল ইজারা ও বিভিন্ন কোম্পানিকে জমি কিনে দেওয়াসহ বিভিন্ন কারণে স্থানীয় প্রভাবশালী দুই আওয়ামী লীগ নেতা ও হোসেন্দী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল মতিন মন্টু গ্রুপের সঙ্গে যুবলীগ নেতা নাজমুল ইসলামের বিরোধ এবং আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। গজারিয়া থানার ওসি মো. হেদায়াতুল ইসলাম ভূইয়া জানান, ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

সংঘর্ষের ঘটনায় আহত তিনজন মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হলে তাদের সদর থানা পুলিশ রাতেই আটক করেছে এবং গজারিয়া থানা পুলিশ আরও চারজনকে আটক করেছে। এ নিয়ে মোট সাতজনকে আটক করা হয়েছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow