Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১৯ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৮ জুলাই, ২০১৬ ২৩:৩৪
আমিনবাজারে ছয় হত্যাকাণ্ড
‘আচমকা লোকজন এসে আমাদের ওপর হামলা চালাল’
আদালত প্রতিবেদক

সাভারের আমিনবাজারে ডাকাত সন্দেহে ছয় ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় একজনের সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়েছে। ওই ঘটনায় বেঁচে যাওয়া ছাত্র আল আমীন গতকাল ঢাকার দ্বিতীয় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ রফিকুল ইসলামের আদালতে সাক্ষ্য দেন। সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আসামিপক্ষ তাকে জেরা করে। আদালত আগামী ৩০ আগস্ট পরবর্তী সাক্ষ্য গ্রহণের দিন ধার্য করেছে। রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন আইনজীবী শাকিলা ইয়াসমিন।   সাক্ষ্যে আল আমীন বলেন, তারা ডাকাত নয়, এ বিষয়টি বার বার বলার পরও স্থানীয় লোকজন তাদের মারধর করেছে। আল আমীন সাক্ষ্যে আরও বলেন, ২০১১ সালের ১৭ জুলাই শবেবরাতে আমিনবাজারের বড়দেশী গ্রামের কেবলাচরে বন্ধুদের সঙ্গে নিয়ে তিনি বেড়াতে গিয়েছিলেন। হঠাৎ বৃষ্টি নামলে তারা একটি ছাউনির নিচে আশ্রয় নেন। আচমকা এলাকার  লোকজন তাদের ওপর হামলা চালায় ও মারধর করে। বাঁচার আকুতি জানালেও তারা মারধর করতে থাকে। ওই ঘটনায় আল আমীন গুরুতর আহত হলেও বেঁচে যান। স্থানীয় বালু ব্যবসায়ী আবদুল মালেক ডাকাতির অভিযোগে আল আমীনসহ নিহত ছাত্রদের বিরুদ্ধে একটি মামলা করেন। হত্যার অভিযোগে সাভার থানার পুলিশ পৃথক আরেকটি মামলা করে। ২০১৩ সালের ৭ জানুয়ারি র‍্যাব তদন্ত শেষে হত্যা মামলায় ৬০ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করে। ওই বছরের ৮ জুলাই ৬০ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়। এ মামলায় একজন কারাগারে, ৫২ জন জামিনে, ছয়জন পলাতক আছেন। অপর এক আসামি মারা গেছেন। ডাকাতির মামলা থেকে আল আমীনকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow