Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, সোমবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : শনিবার, ২৩ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২৩ জুলাই, ২০১৬ ০০:০৪
তারেককে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করা হোক
-----------এনামুল হক শামীম
নিজস্ব প্রতিবেদক

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা ও ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এ কে এম এনামুল হক শামীম বলেছেন, অবিলম্বে তারেক রহমানকে ইন্টারপোলের মাধ্যমে দেশে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করা হোক। বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় থাকতে তারেক রহমান আরেকটি ছায়া সরকার গঠন করেছিলেন, যা পরে তারেক কমিশন নামে পরিচিতি পেয়েছিল।

তিনি দেশের অর্থ মানি লন্ডারিংয়ের মাধ্যমে বিদেশে পাচার করেছেন। গতকাল বিকালে গুলিস্তানে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে ঢাকা দক্ষিণ ও উত্তর ছাত্রলীগ আয়োজিত সমাবেশে শামীম এ কথা বলেন। বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে রায় কার্যকরের দাবিতে এ সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

ঢাকা দক্ষিণ ছাত্রলীগ সভাপতি বায়েজিত আহমেদ খানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সাব্বির হোসেনের পরিচালনায় সমাবেশে বিশেষ অতিথি ছিলেন ছাত্রলীগের আরেক সাবেক সভাপতি লিয়াকত শিকদার। আরও বক্তব্য দেন উত্তরের সভাপতি সৈয়দ মিজানুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন আহমেদ ও কেন্দ্রীয় দফতর সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন শাহজাদা প্রমুখ। এনামুল হক শামীম বলেন, আওয়ামী লীগকে নেতৃত্বশূন্য করতে একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলার পরিকল্পনাকারী তারেক রহমান। বাংলাদেশের মাটিতে তারেককে রাজনীতি করতে দেওয়া হবে না। তার স্থান কারাগারে। আশা করি ব্রিটেনের মতো একটি গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র এই অপরাধীকে স্থান দেবে না।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। তখন বিদেশের মাটিতে বসে তারেক রহমান জঙ্গিবাদের মদদ দিয়ে যাচ্ছেন। মানি লন্ডারিং মামলায় তারেকের সাজা হয়েছে। তার মা খালেদা জিয়ারও বিচার করতে হবে। এ বিচারের হাত থেকে রক্ষা পেতে খালেদা-তারেক জঙ্গিবাদ উসকে দিতে পারেন। প্রত্যেক নেতা-কর্মীকে সতর্ক থাকতে হবে। পাড়া-মহল্লায় প্রতিরোধ কমিটি করতে হবে। নৈরাজ্য সৃষ্টির চেষ্টা করলেই গণধোলাই দিতে হবে। সাবেক সভাপতি লিয়াকত শিকদার বলেন, তারেক রহমান যুক্তরাজ্যে বসেই বাংলাদেশে জঙ্গিবাদের মদদ ও অর্থ দিয়ে যাচ্ছেন। যুক্তরাজ্য সরকারের কাছে অনুরোধ করব, এই সন্ত্রাসীকে বের করে দিন। তা না হলে সেখানেও জঙ্গিবাদের সৃষ্টি করতে পারেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়ের অবদান ডিজিটাল বাংলাদেশের সব সুযোগ-সুবিধা ব্যবহারে ছাত্রলীগকে পারদর্শী হতে হবে। সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল গুলিস্তান থেকে জাতীয় প্রেসক্লাব, পল্টন হয়ে দলীয় কার্যালয়ের সামনে গিয়ে শেষ হয়।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow