Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, বুধবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : সোমবার, ২৫ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২৫ জুলাই, ২০১৬ ০০:০২
কাল শুরু ডিসি সম্মেলন, অগ্রাধিকার পাবে জঙ্গি ইস্যু
নিজস্ব প্রতিবেদক

আগামীকাল থেকে শুরু হচ্ছে চার দিনব্যাপী জেলা প্রশাসক (ডিসি) সম্মেলন। ওই দিন সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের শাপলা হলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন।

এরপর সম্মেলনের পরবর্তী কার্য-অধিবেশনগুলো অনুষ্ঠিত হবে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সম্মেলন কক্ষে। এবারের সম্মেলনে মোট ২২টি অধিবেশন অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে ১৮টি কার্য-অধিবেশনে আলোচনা হবে ডিসিদের পাঠানো ৩৩৬টি প্রস্তাবের ওপর। গতকাল সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম এক প্রেস ব্রিফিংয়ে ডিসি সম্মেলন সম্পর্কে এসব তথ্য জানান। মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, সম্মেলন সামনে রেখে বিভাগীয় কমিশনার ও ডিসিরা যেসব প্রস্তাব করেছেন, সেগুলো নিয়ে সম্মেলনের বিভিন্ন অধিবেশনে বিস্তারিত আলোচনা হবে। ডিসিরা মাঠপর্যায়ে যেসব চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হন, সেগুলো ছাড়াও বিদ্যমান সম্ভাবনা সম্পর্কে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী, উপদেষ্টা, প্রতিমন্ত্রী, উপমন্ত্রী, সিনিয়র সচিব ও সচিবদের উপস্থিতিতে বিস্তারিত আলোচনা হবে। একই সঙ্গে বিভাগীয় কমিশনার ও ডিসিদের দিক-নির্দেশনাও দেওয়া হবে। তিনি বলেন, ডিসি সম্মেলন মাঠ প্রশাসনের অনেক গুরুত্বপূর্ণ ইভেন্ট। নাগরিক সেবাগুলো কীভাবে আরও দ্রুত করা যায় সে বিষয়েও সরকারের নীতি-নির্ধারণ পর্যায় থেকে নির্দেশনা দেওয়া হয়। মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, এবার সম্মেলনে ৩৯টি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত ৩৩৬টি প্রস্তাবের ওপর আলোচনা হবে। এর মধ্যে ভূমি মন্ত্রণালয়-সংক্রান্ত ২৭টি প্রস্তাব এসেছে বিষয়ে। এর পরই রয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। তাদের প্রস্তাবের সংখ্যা ২৫টি। তিনি জানান, সম্মেলনে ভূমি ব্যবস্থাপনা, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির উন্নয়ন, স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানগুলোর কার্যক্রম জোরদারকরণ, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা, ত্রাণ ও পুনর্বাসন কার্যক্রম, স্থানীয় পর্যায়ে কর্ম-সৃজন ও দারিদ্র্যবিমোচন কর্মসূচি বাস্তবায়ন, সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী কর্মসূচি বাস্তবায়ন, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির ব্যবহার এবং ই-গভর্নেন্স, শিক্ষার মান উন্নয়ন ও সম্প্রসারণ, স্বাস্থ্যসেবা ও পরিবারকল্যাণ, পরিবেশ সংরক্ষণ ও দূষণরোধ, ভৌত অবকাঠামোর উন্নয়ন এবং বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের কার্যক্রমের বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ ও সমন্বয়ের বিষয়গুলো আলোচনায় অগ্রাধিকার পাবে। মোহাম্মদ শফিউল আলম জানান, গুলশান ও শোলাকিয়ায় হামলার পরিপ্রেক্ষিতে জেলা প্রশাসকদের ইতিমধ্যে বিশেষভাবে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। জেলা প্রশাসক সম্মেলনের মাধ্যমে তাদের আরও সতর্ক থাকতে বলা হবে। বিশেষ করে বিভাগ ও জেলাপর্যায়ে থাকা আইনশৃঙ্খলা-সংক্রান্ত কোর কমিটি আরও কার্যকর করতে পরামর্শ দেওয়া হবে। একই সঙ্গে মহানগর, জেলা, উপজেলা, পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদে সন্ত্রাস ও নাশকতাবিরোধী কমিটিগুলো যাতে আরও কার্যকর হয় সে জন্য জেলা প্রশাসকদের ভূমিকা নিতে বলা হবে। মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, ২০১৩, ২০১৪ ও ২০১৫ সালের তিনটি জেলা প্রশাসন সম্মেলনের প্রায় সব সিদ্ধান্ত বাস্তবায়িত হয়েছে। ২০১৩ সালের সম্মেলনে মোট ৪৭৪টি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এর মধ্যে বাস্তবায়িত হয় ৪৩৬টি সিদ্ধান্ত। ২০১৪ সালে মোট সিদ্ধান্ত হয় ৪৬৪টি। বাস্তবায়িত হয় ৪৩২টি। গত বছরের সম্মেলনে মোট ৪৭৮টি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বাস্তবায়িত হয় ৪৪৭টি। প্রেস ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, সাধারণত তিন দিন ধরে ডিসি সম্মেলন হলেও এবার প্রধানমন্ত্রী বৃহস্পতিবার ইনোভেশন সামিট উদ্বোধন করবেন। এতে সচিবালয় বা মাঠপর্যায়ে যত ধরনের উদ্ভাবন আছে, সেগুলো তুলে ধরা হবে। এ কারণে ওই দিন আধাবেলা সময় ছেড়ে দিতে হয়েছে। ফলে বৃহস্পতিবারের সেশনগুলো হবে শুক্রবার।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow