Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:০৫
জগন্নাথে আন্দোলন অব্যাহত
ছাত্রলীগের সংঘর্ষের পর শাবির হল ত্যাগের নির্দেশ
প্রতিদিন ডেস্ক

পরিত্যক্ত কারাগারের জমি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়কে হস্তান্তর করে সেখানে আবাসিক হল নির্মাণের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন অব্যাহত রয়েছে। গতকালও তারা ধর্মঘট এবং রাজধানীতে সমাবেশ করেছেন। এদিকে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনাকে কেন্দ্র করে গতকাল শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগ করতে বলা হয়েছে।

জবি প্রতিনিধি জানিয়েছেন, পরিত্যক্ত কারাগারের জমি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়কে হস্তান্তর করে সেখানে আবাসিক হল নির্মাণের দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবে ছাত্র সমাবেশ করেছে জবির সাধারণ শিক্ষার্থীরা। গতকাল বেলা ১১টার দিকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। অন্যদিকে একই দাবিতে ছাত্রলীগ ক্যাম্পাসে ছাত্র ধর্মঘট পালন করেছে। কারাগারের জমিতে হলের দাবিতে আজ পুরান ঢাকায় দিনব্যাপী গণসংযোগ করবে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান,    সকাল ৮টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জমায়েত হতে থাকে। একপর্যায়ে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি বাড়তে থাকলে বেলা ১১টার দিকে ছাত্র সমাবেশ শুরু করে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। এ সময় শিক্ষার্থীরা হলের দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দিলে পুরো এলাকা মুখরিত হয়ে ওঠে। দুপুর ১টা পর্যন্ত তারা সেখানে অবস্থান নেয়। সাধারণ শিক্ষার্থীদের দাবির সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করেছেন বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী এবং বুদ্ধিজীবীরা।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, একটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে আবাসিক সুবিধা থাকবে না তা কখনো মেনে নেওয়া যায় না। এ ছাড়া শিক্ষার্থীদের ন্যায্য দাবিতে শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে পুলিশি হামলা ন্যক্কারজনক ঘটনা। দ্রুত শিক্ষার্থীদের দাবি মেনে নেওয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান বক্তারা। শিক্ষার্থীরা বলেন, কারাগারের জমির জন্য আমরা এক মাস ধরে আন্দোলন করে আসছি। অথচ বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও সরকারের কাছ থেকে কোনো সুস্পষ্ট আশ্বাস পাইনি। স্থানীয় বাসিন্দারা কারাগারের জায়গায় শপিং মল নির্মাণের দাবি করছে। আমরা মনে করি, আবাসিক সংকট নিরসন শপিং মলের চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।

পরে এক সংবাদ সম্মেলনে আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে— আজ সকাল ১০টা থেকে দিনব্যাপী পুরান ঢাকায় সাধারণ শিক্ষার্থীদের গণসংযোগ। এ ছাড়া আগামীকাল ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির তৃতীয় তলায় স্বাধীনতা হলে বিকাল ৪টায় বুদ্ধিজীবী, লেখক ও সাংবাদিকদের সঙ্গে গোলটেবিল বৈঠক।

শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি জানিয়েছেন, সিন্ডিকেটের সিদ্ধান্ত ছাড়া নিয়ম-বহির্ভূতভাবে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলগুলোর শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের নির্দেশ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। গতকাল বিকালে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের পর ক্যাম্পাসে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ার পর নতুন করে সংঘর্ষ এড়াতে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন।  বিশ্ববিদ্যালয় রেজিস্ট্রার ইশফাকুল হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেট সদস্য ও দ্বিতীয় ছাত্রহল প্রভোস্ট এস এম হাসান জাকিরুল ইসলাম জানান,  গতকাল সন্ধ্যা ৬টায় মধ্যে আবাসিক ছাত্র হলগুলো এবং আজ দুপুর ১২টার মধ্যে ছাত্রী হলগুলো ত্যাগের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তবে বিশেষ প্রয়োজনে হল প্রভোস্টের সঙ্গে আলোচনা সাপেক্ষে শিক্ষার্থীরা থাকতে পারবেন। উল্লেখ্য, ফুটবল খেলার কমিটিকে কেন্দ্র করে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের  ছাত্রলীগের মধ্যে সংষর্ষে গত দুই দিনে কমপক্ষে ৫জন আহত হয়েছেন। এ নিয়ে ক্যাম্পাসে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow