Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:১০
পুকুরে মিলল শিশুর বস্তাবন্দী লাশ
নরসিংদী প্রতিনিধি

নরসিংদীর শিবপুরে নিখোঁজের দুই দিন পর এক স্কুলছাত্রের বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল দুপুরে জেলার শিবপুর উপজেলার পুবেরগাঁও গ্রামের বড়বাড়ির সামনে একটি পুকুর থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত বাপ্পি ভূইয়া (১১) পুবেরগাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র ছিল। সে গিদ্দাপাড়া গ্রামের পত্রিকার হকার কাউসার ভূইয়ার ছেলে।

পুলিশ ও নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, বাপ্পি লেখাপড়ার ফাঁকে বাড়ির পাশের একটি মুরগির খামারে কাজ করত। মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে মুরগির খামারের মালিক ফেরদৌসি বেগম গাড়িতে মুরগি তুলে দেওয়ার জন্য বাপ্পিকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যান। এর পর থেকে সে নিখোঁজ ছিল। ছেলেকে না পেয়ে কাউসার ভূইয়া এলাকায় মাইকিং করেন। পরে গতকাল দুপুর ১২টার দিকে পুবেরগাঁও বড়বাড়ির সামনে একটি পুকুরে বস্তাবন্দী অবস্থায় বাপ্পির লাশ পাওয়া যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশ উদ্ধার করে। এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে শত শত গ্রামবাসী ঘটনাস্থলে ভিড় জমায়। ছেলেকে হারিয়ে কান্নার রোল পড়ে নিহতের পরিবারে। মূর্ছা যান কাউসার ভূইয়া। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান শিবপুর উপজেলা চেয়ারম্যান আরিফুল ইসলাম মৃধা। তিনি বলেন, ‘শিশুটিকে মারার কোনো কারণ নেই, আক্রোশেরও কারণ নেই। গোপন কিছু দেখে ফেলায় তাকে হত্যা করা হতে পারে বলে আমাদের ধারণা।’ শিবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খন্দকার ইমাম হোসেন জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মুরগির খামারের মালিক ফেরদৌসি বেগম ও তার মা সাফিয়া খাতুনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় মামলা হয়েছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow