Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : সোমবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:২৩
ঠিকাদার হত্যায় পাঁচজনের ফাঁসি
খায়রুল ইসলাম, গাজীপুর

গাজীপুরে ঠিকাদারকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে হত্যার দায়ে পাঁচজনকে মৃত্যুদণ্ড ও এক আসামির যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। একই সঙ্গে দণ্ডপ্রাপ্ত প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়।

  গাজীপুরের জেলা ও দায়রা জজ এ কে এম এনামুল হক গতকাল দুপুরে এ রায় দেন। মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন— গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ধীরাশ্রম এলাকার শাহাদত আলীর ছেলে ইয়াকুব আলী (৩৫), ইউনুছ আলীর ছেলে হান্নান ওরফে হান্নু (৩৬), চান মিয়ার ছেলে দেলোয়ার হোসেন ওরফে দেলু (৩৬), বাদশা মিয়ার ছেলে মনির (৩৩) ও বেদন মিয়ার ছেলে ইকবাল হোসেন (৩৩)। যাবজ্জীবন সাজার আসামি হলেন, বাচ্চু মিয়ার ছেলে মাসুদ ওরফে মাইছ্যা (২৮)। এদের মধ্যে দেলোয়ার হোসেন ওরফে দেলু ছাড়া অন্যরা পলাতক। রায় ঘোষণার পর আদালত এলাকায় উপস্থিত নিহতের বাবা ও দুই সন্তান সন্তোষ প্রকাশ করে সাজা দ্রুত কার্যকর করার দাবি জানান।

গাজীপুর আদালতের পিপি অ্যাডভোকেট হারিছউদ্দিন আহম্মদ জানান, সিটি করপোরেশনের ধীরাশ্রম এলাকার নুরুল ইসলামের ছেলে মাটি সরবরাহের ঠিকাদার আবু সাইদকে (৪২) ২০০৮ সালের ১৭ জুন সন্ধ্যায় আসামিরা বাড়ি থেকে ডেকে স্থানীয় একটি কিন্ডার গার্টেন স্কুলে নিয়ে যায়। পূর্বশত্রুতার জেরে সেখানে রাত ১১টার দিকে তারা সাইদকে মারপিট, শ্বাসরোধ করে ও অণ্ডকোষ টিপে হত্যা করে। পরে লাশ ধীরাশ্রম রেলওয়ে স্টেশনের কাছে জমিতে ফেলে রাখে। পরদিন এলাকাবাসীর খবরের ভিত্তিতে জয়দেবপুর থানা পুলিশ উদ্ধার করে সাইদের মরদেহ। নিহতের মাথা, কপাল, চোখ, বুক ও গলাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখমের চিহ্ন ছিল। এ ব্যাপারে নিহতের বাবা ওই বছরের ১৮ জুন হত্যা মামলা করেন। তদন্ত শেষে পুলিশ ইয়াকুব আলী, হান্নান ওরফে হান্নু, দেলোয়ার হোসেন ওরফে দেলু, মনির, ইকবাল হোসেন ও মাসুদ ওরফে মাইছ্যার বিরুদ্ধে ২০০৯ সালের ৭ সেপ্টেম্বর আদালতে চার্জশিট দাখিল করে।

up-arrow