Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : সোমবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২২:৫৭
আবারও সরকারকে আলোচনায় বসার আহ্বান ফখরুলের
ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সরকারের উচিত হবে রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে দ্রুত আলোচনার মাধ্যমে রাজনৈতিক সংকট নিরসন করা। সরকার বিরোধী দলকে নিশ্চিহ্ন করে দেওয়ার যে প্রক্রিয়া শুরু করেছে তা দেশের জন্য, জাতির জন্য ও আওয়ামী লীগের জন্যও মঙ্গলকর হবে না।    

গতকাল দুপুরে নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় এ কথা বলেন তিনি।

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, সমস্যা নিরসনে বিরোধী দল ও সরকারের সঙ্গে আলোচনা হওয়া উচিত। সুষ্ঠু নির্বাচন, যে নির্বাচন হবে অবাধ নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে তা নিয়ে আলোচনা হওয়া উচিত। আলোচনায় থাকা উচিত কীভাবে জনগণের প্রতিনিধিত্বশীল সরকার গঠিত হবে। এ ছাড়া এই সমস্যা নিরসনে আর কোনো বিকল্প পথ নেই। সরকার গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে একে একে ভেঙে ফেলে এক দলীয় শাসন ব্যবস্থা গড়ে তোলার জন্য আটঘাট বেঁধে নেমেছে। তারা সবার আগে আঘাত করে সংবাদ মাধ্যম নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও প্রশাসনকে দলীয় স্বার্থে ব্যবহার করছে। যা গণতন্ত্রকে ধ্বংস করার জন্য বড় অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করছে। তারা বিচার ব্যবস্থাকে নিয়ন্ত্রণ করায় মানুষের আস্থা বিচার বিভাগ থেকে নষ্ট হয়ে গেছে। তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশকে একটি অকার্যকর জঙ্গি রাষ্ট্রে পরিণত করতে এ সরকার কাজ করছে। আজকে এই জঙ্গিবাদকে যারা প্রশ্রয় দিচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে সুষ্ঠু তদন্ত হওয়া উচিত। যদি সঠিক তদন্ত না হয় তাহলে আমরা জঙ্গিবাদের শিকড়ের খোঁজ পাব না। এ জন্য বাংলাদেশের সব দল-মতের মানুষকে একত্রিত করে এর বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপি সহ-সভাপতি সুলতানুল ফেরদৌস নম্র, সাধারণ সম্পাদক তৈমুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল্লাহ মাসুদসহ আরও অনেকে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow