Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:০৬
রাজস্ব ফাঁকিবাজ প্রতিষ্ঠানের তালিকা করবে এনবিআর
নিজস্ব প্রতিবেদক

সারা দেশের মাঠ পর্যায়ে রাজস্ব ফাঁকি দেওয়া প্রতিষ্ঠানের তালিকা প্রণয়ন ও তাদের রাজস্ববান্ধব প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরের জন্য কৌশল প্রণয়নসহ সংশ্লিষ্টদের পাঁচ দফা নির্দেশনা দিয়েছেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ড—এনবিআর চেয়ারম্যান নজিবুর রহমান। সর্বস্তরে রাজস্ববান্ধব সংস্কৃতি প্রতিষ্ঠায় কর্মকর্তাদের আন্তরিক প্রয়াস চালানোর এ নির্দেশনা দিয়ে তিনি বলেছেন, বাংলাদেশের অর্থনীতি দিন দিন বেগবান হওয়ায় আয়কর, শুল্ক ও ভ্যাট রাজস্বের সম্ভাবনা বাড়ছে। তবে মাঠ পর্যায়ে যথেষ্ট প্রয়াস চালানো সত্ত্বেও এখন পর্যন্ত অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে নিয়োজিত সব প্রতিষ্ঠান-ব্যক্তিকে করের আওতায় আনা যায়নি। এখনো বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ বিরাজ করছে। এ বিষয়ে মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ প্রয়োজন। গতকাল সরকারের রাজস্ব আদায়কারী প্রতিষ্ঠান এনবিআরের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়— নজিবুর রহমান বলেছেন, চলতি ২০১৬-১৭ অর্থবছরের বাজেটে লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে গতিশীলতা বজায় রাখা প্রয়োজন। এ ক্ষেত্রে যেসব বাধা ও প্রতিবন্ধকতা আসবে তা নিরসনে সর্বোচ্চ চেষ্টা অব্যাহত রাখতে হবে। এনবিআর চেয়ারম্যান নজিবুর রহমান আয়কর, শুল্ক ও ভ্যাট বিভাগের মাঠ পর্যায়ের কমিশনার এবং মহাপরিচালকদের পাঁচ দফা নির্দেশনা দিয়ে বলেছেন, মাঠ পর্যায়ের সব দফতরের সঙ্গে সমন্বয় রেখে কর রাজস্বের সম্ভাবনা ও চ্যালেঞ্জ সম্পর্কে একটি প্রতিবেদন প্রেরণ করতে হবে। সব রাজস্ব কর্মকর্তার পারফরম্যান্সের মূল্যায়ন ও মাসিক ভিত্তিতে প্রতিবেদন প্রেরণ করতে হবে এনবিআরে। এর সঙ্গে তথ্য ও যোগাযোগ-প্রযুক্তি বা আইসিটি ব্যবহারের মাধ্যমে আয়কর, শুল্ক ও ভ্যাট কার্যক্রমকে গতিশীল করতে হবে। সেই লক্ষ্যে ফেসবুক নিয়মিতভাবে সমৃদ্ধ (আপডেট) করতে হবে। বিশেষ করে ভ্যাট অনলাইন প্রকল্প, ট্যাক্স অনলাইন প্রকল্প ও অ্যাসাইকুডা ওয়ার্ল্ড সিস্টেম কার্যক্রমকে সফল করতে সর্বোচ্চ প্রয়াস চালাতে হবে। এসব বিষয় নিয়ে আয়কর, শুল্ক ও ভ্যাট বিভাগের মহাপরিচালক ও কমিশনারদের মধ্যে মাসিক পর্যালোচনা সভা করতে হবে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow