Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বুধবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:০০
এমপিকে নিয়ে মন্তব্যে দণ্ড, ম্যাজিস্ট্রেট ওসিকে তলব
নিজস্ব প্রতিবেদক

টাঙ্গাইল-৮ আসনের এমপি অনুপম শাজাহান জয়কে নিয়ে ফেসবুকে মন্তব্যের কারণে টাঙ্গাইলের এক স্কুলছাত্রকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে কারাদণ্ড দেওয়ার ঘটনায় স্থানীয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ওসিকে তলব করেছে হাইকোর্ট। বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি আশীষ রঞ্জন দাসের বেঞ্চ গতকাল স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে এ আদেশ দিয়ে ওই স্কুলছাত্রকে জামিন দেয়।

 

নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া ওই ছাত্রকে কারাদণ্ড দেওয়ার ঘটনায় একটি ইংরেজি দৈনিকে প্রকাশিত প্রতিবেদন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান আদালতের নজরে আনলে এই আদেশ দেয়। পরে খুরশীদ আলম খান বলেন, আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর দুই কর্মকর্তাকে আদালতে হাজির হয়ে কারাদণ্ডের বিষয়ে তাদের ব্যাখ্যা দিতে হবে। টাঙ্গাইলের ওই দুই কর্মকর্তা হলেন সখীপুরের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম এবং সখীপুর থানার ওসি মোহাম্মদ মাকসুদুল আলম। কারাদণ্ড পাওয়া ওই দুই স্কুলছাত্রকে আদালত জামিন দিয়েছে বলেও জানান তিনি। তিনি বলেন, আমি আদালতকে বলেছি, ওই ঘটনায় একটি জিডি হয়েছে, বিষয়টি তদন্তের পর্যায়ে রয়েছে। তদন্তের পর্যায়ে থাকা কোনো বিষয়ে এভাবে মোবাইল কোর্টে দণ্ড দেওয়া যায় না। আর আসামি যদি শিশু হয়, তাকে শিশু আইনে বিচার করতে হবে। সেটাও দেখতে হবে। গণমাধ?্যমে আসা প্রতিবেদনে বলা হয়, টাঙ্গাইল-৮ (বাসাইল-সখীপুর) আসনের এমপি অনুপম শাজাহান জয় গত শুক্রবার রাতে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। সেখানে বলা হয়, ফেসবুকে একটি আইডি থেকে এমপিকে হুমকি দেওয়া হয়েছে। এমপির অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ উপজেলার প্রতিমা বঙ্কি এলাকা থেকে ওই স্কুলছাত্রকে আটক করে।

পরে রবিবার তাকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করা হলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম তাকে দুই বছরের কারাদণ্ড দেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow