Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শনিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:০৯
জুমা শেষে বাড়ি ফেরা হলো না শিশু রবিউলের
নিজস্ব প্রতিবেদক
জুমা শেষে বাড়ি ফেরা হলো না শিশু রবিউলের
কান্নায় ভেঙে পড়েন শিশু রবিউলের স্বজনরা —জয়ীতা রায়

রাজধানীর কাওরানবাজারে বাসের চাপায় রবিউল আওয়াল ইমন (১০) নামে এক মাদ্রাসাছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল জুমার নামাজ শেষে রাস্তা পার হওয়ার সময় এ ঘটনা ঘটে।

  ছয় ভাইবোনের মধ্যে ইমন সবার ছোট। জামিয়া আম্বরশাহ মাদ্রাসায় হিফজ বিভাগে সে পড়ত। তাদের বাড়ি কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী থানার করগাঁও চমকপুর গ্রামে। ইমন পরিবারের সঙ্গে পান্থপথের কাজীপাড়ায় থাকত। ময়নাতদন্ত ছাড়াই ইমনের লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছে পুলিশ। বাবা সাইদুল ইসলাম জানান, ‘ইমন বলত, মা আমি বড় হয়ে আলেম হব, আমাকে মাদ্রাসায় ভর্তি করিয়ে দাও। ওর কথা মতো জামিয়া আম্বরশাহ মাদ্রাসায় ভর্তি করা হয়। তিন পারা হেফজ শেষ করেছিল। গতকাল জুমার নামাজ পড়তে মসজিদে যায়। বাসায় আমরা ওর জন্য অপেক্ষা করছিলাম। কিন্তু নামাজ শেষে বাসায় ফেরার পথে ঘাতক বাস আমার ছেলের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে। ’ প্রত্যক্ষদর্শী পান দোকানি সখিনা বেগম বলেন, হঠাৎ শিশুর ‘মা’ বলে চিৎকার শুনতে পেলাম। তাকিয়ে দেখি একটি শিশুর নিথর দেহ রাস্তায় পড়ে আছে। দৌঁড়ে যাওয়ার আগেই সব শেষ হয়ে গেছে। অন্য প্রত্যক্ষদর্শী একরাম, হাসান ও আবু জাফরও এমনই জানিয়েছেন। তেজগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল ইসলাম বলেন, রাস্তা ফাঁকা পেয়ে শিশুটি বিভাজনের মধ্যে দেওয়া কাঁটাতারের মাঝের অংশ দিয়ে রাস্তা পাড় হচ্ছিল। এ সময় ওয়েলকাম পরিবহনের একটি বাস শিশুটিকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। পুলিশ বাসটিকে কমলাপুর থেকে আটক করলেও চালক পালিয়ে গেছে। ওয়েলকাম পরিবহনের বাসগুলো সাভার থেকে কমলাপুর পর্যন্ত চলাচল করে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow