Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২২:৩৯
জলহস্তী পরিবারে নতুন অতিথি
মোস্তফা কাজল
জলহস্তী পরিবারে নতুন অতিথি

ঢাকার জাতীয় চিড়িয়াখানায় বিশালদেহী জলহস্তী আগস্তর পরিবারে এসেছে নতুন অতিথি। কয়েক দিন আগে স্ত্রী জলহস্তির গর্ভে জন্ম নেয় একটি বাচ্চা।

৩০ বছর বয়সী মা জলহস্তীর জন্ম হয়েছিল কেনিয়াতে। ১৯৯৯ সালের জুলাই মাসে কেনিয়া সরকার বাংলাদেশকে দান করেছিল এ প্রাণীটিকে। চিড়িয়াখানার কিউরেটর ডা. এস এম নজরুল ইসলাম জানান, জলহস্তী পরিবারে কয়েক দিন আগে নতুন অতিথির জন্ম হয়েছে। দুই-এক দিনের মধ্যে নাম দেওয়া হতে পারে। এ জন্য নামের প্রস্তাব প্রাণিসম্পদ অধিদফতরে পাঠানো হয়েছে। আবদ্ধ অবস্থায় এসব বন্যপ্রাণী বাচ্চার জন্ম দিতে চায় না। কিন্তু জলহস্তী বাচ্চার জন্ম দিয়ে নতুন ইতিহাস সৃষ্টি করল। বর্তমানে জলহস্তীর আন্তর্জাতিক বাজার মূল্য প্রায় এক কোটি টাকা। চিড়িয়াখানায় নতুন অতিথি আগমনের মধ্য দিয়ে জলহস্তীর সংখ্যা দাঁড়াল ১১-তে। গতকাল চিড়িয়াখানায় গিয়ে দেখা যায়, বাচ্চা নিয়ে ব্যস্ত মা জলহস্তী। পরিচর্যাকারী নুর আলম কচি ঘাস ও গমের ভূষি খেতে দেন। খাবার পেয়ে হুমড়ি খেয়ে পড়ে বাচ্চাসহ জলহস্তীটি। চিড়িয়াখানার প্রাণী পুষ্টি কর্মকর্তা আবু সাঈদ কামাল বাচ্চু জানান, জলহস্তীর বাচ্চা জন্ম দেওয়ার পর থেকে  নতুন অতিথিকে দেখভাল করার জন্য কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ ছাড়া এ প্রাণী কমপক্ষে ৩০ দিন পর্যন্ত মা বাচ্চাকে সারাক্ষণ আগলে রাখে। তিনি বলেন, এক সময় স্ত্রী জলহস্তীটি বেষ্টনীর মধ্যে দৌড়ঝাঁপ করত। মানুষ দেখলে তেড়ে আসত। এখন সদ্যোজাত বাচ্চা পেয়ে সারাক্ষণ ব্যস্ত। চারদিকে তার সতর্ক চাহনি।

up-arrow