Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:৫৩
সিগারেটের আগুনে বিস্ফোরণ, দগ্ধ ছয়
নিজস্ব প্রতিবেদক
সিগারেটের আগুনে বিস্ফোরণ, দগ্ধ ছয়
রাজধানীতে সেপটিক ট্যাংকের বিস্ফোরণে দগ্ধরা —বাংলাদেশ প্রতিদিন

রাজধানীর ধানমন্ডি এলাকার একটি ভবনের পানির রিজার্ভ ট্যাঙ্কির ভিতরে ঢুকে ধূমপান করার সময় আগুন ধরে ছয়জন দগ্ধ হয়েছেন। গতকাল সকালে ধানমন্ডি ৪ নম্বর সড়কের ৩৪/এ নম্বর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

দগ্ধরা হলেন ওই ভবনের নিরাপত্তারক্ষী আবেদ আলী, শ্রমিক সাদ্দাম হোসেন, রাজ্জাক, মাসুম আলী, আবদুর রাজ্জাক ও শিরিন আক্তার। দগ্ধদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। চিকিৎসকরা বলছেন, আগুনে শিরিনের শরীরের ২০ শতাংশ, সাদ্দামের ৩০, আবেদের ৩৮, রাজ্জাকের ২৭, আবদুর রাজ্জাকের ৩৮ ও মাসুমের শরীরের ৪৯ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে। দগ্ধ সবার খাদ্যনালি আক্রান্ত হয়েছে। কেউই শঙ্কামুক্ত নন। জানা গেছে, নিরাপত্তারক্ষী আবেদ ছাড়া বাকি সবাই শ্রমিক। দগ্ধ সাদ্দাম হোসেন জানান, গত মঙ্গলবার থেকে তারা পানির ট্যাঙ্কি পরিষ্কারের কাজ করছিলেন। গতকাল সকালেও তারা ট্যাঙ্কির ভিতরে ঢোকেন। পরিষ্কারের একপর্যায়ে আবেদ একটি সিগারেট ধরান। সঙ্গে সঙ্গে ট্যাঙ্কির ভিতরে আগুন ধরে যায়। ট্যাঙ্কি থেকে বের হওয়ার একটি মাত্র পথ থাকায় তারা বের হতে সময় লাগে। এতে তাদের গায়ে আগুন ধরে যায়। পরে চিৎকার শুনে ভবনের বাসিন্দা ও আশপাশের লোকজন তাদের উদ্ধার করেন। পুলিশের ধানমন্ডি অঞ্চলের সিনিয়র এসি রুহুল আমিন সাগর বলেন, চার বছর পর ওই বাড়ির রিজার্ভ ট্যাঙ্কি গত তিনদিন ধরে সংস্কার করছিল শ্রমিকরা। চারতলা ভবনের ওই ট্যাঙ্কিতে পানি ছিল না। প্রতিদিনের ন্যায় সকালে শ্রমিকরা কাজ শুরু করেন। তাদের কাজে সহযোগিতা করতে ওই বাড়ির দারোয়ান মুখে সিগারেট নিয়ে ট্যাঙ্কির কাছে আসতেই বিস্ফোরণ ঘটে। এতে ছয়জন দগ্ধ হয়। ফায়ার সার্ভিস সূত্র বলছে, সেখানে বৈদ্যুতিক বাতি জ্বালিয়ে কাজ করছিল শ্রমিকরা। অতিরিক্ত গ্যাসের কারণে বাতি ফেটে বিস্ফোরণ ঘটতে পারে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow