Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:৫৯
কোস্টগার্ডের সাবেক ডিজি গ্রেফতার
নিজস্ব প্রতিবেদক

কোস্টগার্ডের সাবেক মহাপরিচালক (ডিজি) ও বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নিরাপত্তাবিষয়ক সাবেক উপদেষ্টা কমোডর (অব.) এম সফিক-উর-রহমানকে গ্রেফতার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। গত বুধবার রাতে রাজধানীর মহাখালীর নিউ ডিওএইচএসের বাসায় অভিযান চালিয়ে দুর্নীতির মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়। সংস্থার পরিচালক এনামুল বাছিরের নেতৃত্বে দুদকের একটি দল সফিক-উর-রহমানকে গ্রেফতার করে। এদিকে, গতকাল দুর্নীতির মামলায় এম সফিক-উর-রহমানকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। ঢাকা মহানগর হাকিম এমদাদুল হক তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। এর আগে তাকে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিমের আদালতে হাজির করে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন দুদকের সহকারী পরিচালক নুরুল ইসলাম সরকার। দুদক বলছে, কোস্টগার্ডের প্রায় ১১ হাজার ১০০ মেট্রিক টন গম দুর্নীতির মাধ্যমে বিক্রি করে প্রায় সাড়ে সাত কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ১৯৯৮ সালে তৎকালীন দুর্নীতি দমন ব্যুরো সফিক-উর-রহমানসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে রাজধানীর ক্যান্টনমেন্ট থানায় মামলা করে। মামলার এজাহারে বলা হয়, গ্রামীণ অবকাঠামো সংস্কার কর্মসূচির আওতায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় কোস্টগার্ডের অনুকূলে ১১ হাজার ১০০ মেট্রিক টন গম বরাদ্দ দেয়। নিয়মানুযায়ী ওই গম বিক্রির সুযোগ ছিল না। কিন্তু কোস্টগার্ডের তৎকালীন মহাপরিচালক সফিক-উর-রহমান ওই গম বিক্রির জন্য একটি কমিটি গঠন করেন। কমিটি কতগুলো ভুয়া প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে কোটেশন নিয়ে নিজেদের খেয়াল খুশিমতো পাঁচ টাকা কেজি দরে গম বিক্রি করে। অথচ ওই সময় গমের বাজারমূল্য ছিল প্রতি কেজি ১১ টাকা ৬৪ পয়সা। এভাবে অভিযুক্ত ব্যক্তিরা ৭ কোটি ৩৭ লাখ ৪ হাজার টাকা আত্মসাৎ করেন। পরে ওই মামলার বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে রিট করেন সফিক-উর-রহমান। রিটের নিষ্পত্তি হওয়ায় তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন বিচারিক আদালত। সফিক-উর-রহমান ১৯৯৫ সালের ফেব্রুয়ারি থেকে ১৯৯৮ সালের আগস্ট পর্যন্ত কোস্টগার্ডের ডিজি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow