Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : রবিবার, ২ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:২৭
ফের জনমতে এগিয়ে হিলারি
সাবেক বিশ্বসুন্দরীকে আপত্তিকর মন্তব্য ট্রাম্পের
প্রতিদিন ডেস্ক
ফের জনমতে এগিয়ে হিলারি

যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেট দলের প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন নতুন জনমত জরিপে তার প্রতিদ্বন্দ্বী ডোনাল্ড ট্রাম্পের চেয়ে এগিয়ে রয়েছেন। দুই নেতার মধ্যে সরাসরি টেলিভিশন বিতর্কের কয়েক দিন পর শুক্রবার নতুন জরিপটি চালানো হয়। জরিপটি পরিচালনা করে ফক্স নিউজ।

জরিপে দেখা যায়, ডেমোক্রেট দলের প্রার্থী ও সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি তার রিপাবলিকান প্রতিদ্বন্দ্বীর চেয়ে ৩ শতাংশ ভোটে এগিয়ে রয়েছেন। জনমত জরিপে হিলারি ৪৩ ও ট্রাম্প ৪০ শতাংশ ভোট পেয়েছেন। কিন্তু মাত্র দুই সপ্তাহ আগে একই জরিপে তিনি ট্রাম্পের চেয়ে মাত্র ১ শতাংশ ভোটে এগিয়ে ছিলেন। টেলিভিশনে দুই নেতার বিতর্কটি উপভোগ করে বিপুলসংখ্যক দর্শক। খবর এএফপির। এদিকে নির্বাচনী যুদ্ধে হিলারি ক্লিনটনকে আপত্তিকর ভাষায় একের পর এক আক্রমণের ধারাবাহিকতায় এবার সাবেক এক বিশ্বসুন্দরীকে খোঁচা মেরে বসলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। বিবিসি জানায়, যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান দলের মনোনীত এ প্রার্থী শুক্রবার এক ট্যুইটে সাবেক ‘মিস ইউনিভার্স’ অ্যালিসিয়া মাচাদোর অতীত ইতিহাস ও ‘সেক্স টেপ’ খতিয়ে দেখতে আমেরিকানদের প্রতি আহ্বান জানান।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম বলছে, যদিও ট্রাম্পের সঙ্গে অ্যালিসিয়ার একসময় সম্পর্কটা বেশ ঘনিষ্ঠই ছিল। কিন্তু নির্বাচনী যুদ্ধে প্রতিপক্ষের দুর্গে আঘাত হানতে গিয়ে তিনি অ্যালিসিয়াকেও ছাড়েননি। লাতিন এই সুন্দরীকে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকত্ব নিতে হিলারি ‘সহযোগিতা’ করেছেন বলে অভিযোগ ট্রাম্পের। ১৯৯৬ সালে মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হন ভেনেজুয়েলায় জন্ম নেওয়া অ্যালিসিয়া।

ট্যুইটারে ট্রাম্প বলেন, ‘মাথা খারাপ হিলারি কি বিরক্তিকর অ্যালিসিয়া মাচাদোকে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকত্ব দিয়েছিলেন, যেন তাকে বিতর্কে ব্যবহার করা যায়?’ ছাড়েননি হিলারিও। প্রতিক্রিয়ায় একে  ‘বিকৃতমস্তিষ্কের বক্তব্য’ বলে আখ্যা দিয়ে হিলারি বলেন, ‘ডোনাল্ডের (ট্রাম্প) সরু চামড়ার নিচ দিয়ে যখন কিছু যায়, তিনি তাকে একটুও ছাড় দেন না। এ ধরনের আচরণ একজন প্রেসিডেন্টের জন্য বিপজ্জনক হবে।’ অন্যদিকে ট্রাম্পের ট্যুইটকে পুরুষবাদী অভিহিত করে অ্যালিসিয়া বলেছেন, নারী সম্পর্কে তার ধারণা ‘বিরক্তিকর’। ‘যে আক্রমণ আমাকে করা হয়েছে তা উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও মিথ্যায় ভরপুর; এ ধরনের বিদ্বেষপূর্ণ বক্তব্যের মধ্য দিয়ে রিপাবলিকান প্রার্থী নারীদের কলঙ্কিত করতে চাইছেন, নীতিহীন হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে চাইছেন; যা তার স্বভাবেও আছে’, বলেন অ্যালিসিয়া।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow