Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : সোমবার, ৩ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:০৬
আফ্রিকার জঙ্গলে বন্দী দুই বাংলাদেশি
দফায় দফায় মুক্তিপণ আদায়
ফরিদপুর প্রতিনিধি

কানাডায় পাঠানোর কথা বলে দালালের খপ্পরে পড়ে ফরিদপুরের তৈয়ব মোল্যা ও আজিজুর রহমান মোল্যা নামে দুই ব্যক্তি এখন দক্ষিণ আফ্রিকার জঙ্গলে বন্দী অবস্থায় মৃত্যুর প্রহর গুনছেন। এ দুজনকে জিম্মি করে দালাল চক্রটি তাদের পরিবারের কাছ থেকে হাতিয়ে নিচ্ছে লাখ লাখ টাকা। চাওয়া হয়েছে আরও টাকা। দাবি করা টাকা না দিলে তাদের  মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়েছে। এ নিয়ে চরম উৎকণ্ঠার মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন বন্দী পরিবারের সদস্যরা। জেলার নগরকান্দা উপজেলার লস্করদিয়া ইউনিয়নের লস্করপুর গ্রামের বাসিন্দা মাহফুজুর রহমান মোল্যা জানান, তার ছোট ভাই তৈয়ব মোল্যা (২০) এবং ভগ্নিপতি আজিজুর রহমান মোল্যাকে (৪৮) কানাডায় পাঠানোর জন্য আলফাডাঙ্গার জনৈক হাবিবুর রহমান হাবিবকে ১৮ লাখ টাকা দেন। গত ৬ সেপ্টেম্বর তারা কানাডার উদ্দেশে রওনা দেয়। তিন দিন পর তাদের দক্ষিণ আফ্রিকায় নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর তাদের দক্ষিণ আফ্রিকার জঙ্গলের একটি ঘরে আবদ্ধ করে রাখা হয়। মাহফুজুর রহমান মোল্যা অভিযোগ করে আরও বলেন, তার ভাই ও ভগ্নিপতিকে দিয়ে ফোন করায় দালাল চক্র। তাদের মুক্তির জন্য বিপুল পরিমাণ টাকা চাওয়া হয়। প্রথমে ১০ লাখ টাকা দিলেও জিম্মি চক্রটি তৈয়ব মোল্যা ও আজিজুর রহমান মোল্যাকে মুক্তি দেয়নি। বিভিন্ন সময় দালাল চক্রটি ফোন করে টাকা দাবি করে। এ পর্যন্ত ফরিদপুর সিটি ব্যাংকের মাধ্যমে দালাল চক্রটিকে ২৮ লাখ টাকা দেওয়া হয়। তারপরও মুক্তি পায়নি তৈয়ব ও আজিজুর রহমান। দাবি করা টাকা না দিলে তৈয়ব ও আজিজুরকে হত্যা করা হবে বলে সাফ জানিয়ে দেয় দালাল চক্রটি। আজিজুর রহমানের স্ত্রী মাহমুদা জামান কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, ২৫ দিন ধরে আমার স্বামী ও ভাইকে আফ্রিকার জঙ্গলে আটকে রেখে টাকা আদায় করছে। আমি একটি সন্তান নিয়ে এখন মানবেতর দিন কাটাচ্ছি। সরকারের কাছে অনুরোধ আমার স্বামী ও ভাইকে দ্রুত উদ্ধার করা হোক। এদিকে, গত সোমবার দুপুরে বাড়িতে তৈয়ব ফোন করে জানান, তাদের ওপর বিভিন্নভাবে নির্যাতন করা হচ্ছে। টাকা না দিলে তাদের দুজনকে মেরে ফেলা হবে বলেও জানানো হয়েছে। দক্ষিণ আফ্রিকার কোন জঙ্গলে তাদের আটকে রাখা হয়েছে তা জানাতে পারেনি তৈয়ব। এ ঘটনার পর আজিজুর রহমান মোল্যার গ্রামের বাড়ি গোপালগঞ্জ জেলার কাশিয়ানী থানায় অপহরণ ও মুক্তিপণ আদায়ের অভিযোগে একটি মামলা করা হয়েছে। মামলাটি দায়ের করেছেন আজিজুর রহমান মোল্যার স্ত্রী মাহমুদা জামান। তৈয়ব মোল্যা ও আজিজুর রহমান মোল্যার পরিবারের দাবি, স্থানীয় দালাল চক্রটি দক্ষিণ আফ্রিকায় থাকা চক্রের সঙ্গে আঁতাত করে ২৮ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। এখন আরও টাকা দাবি করছে। তৈয়ব ও আজিজুর রহমান মোল্যাকে কানাডা পাঠানোর কথা বলে টাকা নেওয়া আলফাডাঙ্গার হাবিবুর রহমানকে ফোন করা হলে তিনি রিসিভ করেননি।

 

এই পাতার আরো খবর
up-arrow