Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : সোমবার, ৩ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৩ অক্টোবর, ২০১৬ ০২:২৭
অষ্টম কলাম
মা বললেন পাগল ইরাদের বিরুদ্ধে আরও পাঁচ মামলা
নিজস্ব প্রতিবেদক

নিজের ছেলেকে ‘মানসিক ভারসাম্যহীন’ ও ‘পাগল’ বলে দাবি করেছেন চৌধুরী ইরাদ আহমেদ সিদ্দিকীর মা বেগম খুরশীদ আজিম সিদ্দিকী। গতকাল বাংলাদেশ প্রতিদিনে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘আমার বড় ছেলে ইরাদ আহমেদ সিদ্দিকী বিদেশে বসবাস করে।

তার বয়স ৪৫ বছর। সে ব্রেইন টিউমারের রোগী। পরিবারের সঙ্গে ইরাদ সিদ্দিকী কোনো সম্পর্ক রাখেনি। তার পাগলামির জন্য পরিবারও তার সঙ্গে সম্পর্ক রাখছে না। আমরা তার কোনো কথা আমলেও নেইনি। ইরাদ পাগল ও মানসিক ভারসাম্যহীন। ’ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে জড়িয়ে দেওয়া ইরাদ সিদ্দিকীর বক্তব্যকে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখার জন্যও দেশবাসীর কাছে অনুরোধ জানান চৌধুরী তানভীর আহমেদ সিদ্দিকীর স্ত্রী বেগম খুরশীদ আজিম সিদ্দিকী। তিনি বলেন, ইরাদ সিদ্দিকী একজন মিথ্যাবাদী, পাগল। কখন কী বলে, কখন কী করে—তা কারও বোধগম্য নয়। সে একজন বয়স্ক পাগল। তার কথা পরিবারের কেউ বিশ্বাস করে না। খুরশীদ আজিম সিদ্দিকী বলেন, বেশ কিছুদিন আগে যুক্তরাষ্ট্রের একটি হাসপাতালে তার ব্রেইন টিউমারের অপারেশন হয়। ইরাদ জীবনে বেঁচে গেলেও মাঝেমধ্যে মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলে। সে কখনো ভালো, কখনো পাগল। তার কথার কোনো গুরুত্ব নেই। আইনগত ভিত্তিও নেই। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সাবেক সদস্য তানভীর সিদ্দিকীর স্ত্রী আরও জানান, ধূমকেতুর মতো ইরাদ মাঝেমধ্যে দেশে আসে। পরিবারের সদস্যদের ওপর অত্যাচার চালায়। বাড়িঘর ভাঙচুর করে। ভয়ে পরিবারের কেউ তার সঙ্গে কথাও বলে না। সেক্ষেত্রে আমাদের সহ্য ও ধৈর্য ধরা ছাড়া কোনো উপায় নেই। তার কোনো কথা আমলে না নেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্টদের অনুরোধ জানাচ্ছি।

পাঁচ জেলায় চৌধুরী ইরাদের বিরুদ্ধে মামলা : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ফেসবুকে হত্যার হুমকি এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে ব্যঙ্গটিত্র বানিয়ে ফেসবুকে পোস্ট করার অভিযোগে সাবেক বিএনপি নেতা চৌধুরী তানভীর আহমেদ সিদ্দিকীর ছেলে চৌধুরী ইরাদ আহমেদ সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে রংপুর, যশোর, ঝালকাঠি, ধামরাই ও ঝিনাইদহ জেলায় গতকাল ৫টি মামলা হয়েছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow