Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৬ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৫ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:০৯
জলাবদ্ধতা নিরসন দাবির বিক্ষোভে পুলিশের লাঠিচার্জ
নিজস্ব প্রতিবেদক, যশোর
জলাবদ্ধতা নিরসন দাবির বিক্ষোভে পুলিশের লাঠিচার্জ
যশোরের ভবদহ এলাকার জলাবদ্ধ মানুষ পানি নিষ্কাশনের দাবিতে গতকাল যশোর-খুলনা মহাসড়কের নওয়াপাড়ায় অবরোধ করতে গেলে পুলিশ লাঠিচার্জ করে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয় —বাংলাদেশ প্রতিদিন

যশোরের তিন উপজেলার জলাবদ্ধ এলাকার (ভবদহ) পানি নিষ্কাশনের দাবিতে রাজপথ-রেলপথ অবরোধ কর্মসূচি পুলিশি বাধায় পণ্ড হয়ে গেছে। এ সময় লাঠিচার্জে আহত হয়েছেন আন্দোলনকারী অর্ধশতাধিক নারী-পুরুষ।

ভবদহ পানি নিষ্কাশন সংগ্রাম কমিটির আয়োজনে গতকাল যশোর-খুলনা মহাসড়কের নওয়াপাড়ায় অবরোধ কর্মসূচি শুরু হয়। কর্মসূচি শুরু করা মাত্রই  ছত্রভঙ্গ করতে লাঠিচার্জ করে পুলিশ। সংগ্রাম কমিটির নেতারা অভিযোগ করেন, পুলিশ বিনা উসকানিতে হামলা চালিয়েছে। কমিটির ভারপ্রাপ্ত সদস্য সচিব চৈতন্যকুমার পাল জানান, তারা মিছিল নিয়ে স্বাধীনতা চত্বরে পৌঁছার পরই পুলিশ লাঠিচার্জ শুরু করে। এ ঘটনার প্রতিবাদে সহস্রাধিক নারী-পুরুষ পরে স্থানীয় পশু হাসপাতালের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ করেন। অভয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনিসুর রহমান দাবি করেন, আন্দোলনকারীরা পুলিশের ওপর চড়াও হলে পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। তাদের ওপর হামলার কথা অস্বীকার করে ওসি জানান, জলাবদ্ধ এলাকার মানুষের জন্য সরকার ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। তাদের সড়ক অবরোধ করার কী দরকার। জানা যায়, অতিবৃষ্টিতে জলাবদ্ধতার কারণে অভয়নগর, মনিরামপুর ও কেশবপুরের কয়েক লাখ মানুষ মানবেতর জীবন-যাপন করছেন। পানি নিষ্কাশনে মাত্র একটি স্কেভেটর ব্যবহার করায় পানি নামছে ধীরগতিতে। দ্রুত পানি নামাতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ক্ষতিগ্রস্তরা আন্দোলন করে আসছেন। সংগ্রাম কমিটির আহ্বায়ক রণজিৎ বাওয়ালী বলেন, বুধবার সকাল ১০টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত নওয়াপাড়ায় রাজপথ ও রেলপথ অবরোধের কর্মসূচি পালনের কথা ছিল। কিন্তু পুলিশ আমাদের রাস্তায় জড়ো হতেই দেয়নি। পুলিশ নারী-পুরুষ-নির্বিশেষে লাঠিপেটা করে আমাদের আহত করেছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow