Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : রবিবার, ৯ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৮ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:৪২
মহাষ্টমী ও কুমারীপূজা আজ
প্রিন্স বিশ্বাস
মহাষ্টমী ও কুমারীপূজা আজ
শারদীয় দুর্গাপূজা উৎসবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গতকাল ঢাকেশ্বরী মন্দিরের পূজামণ্ডপ পরিদর্শন করেন —বাংলাদেশ প্রতিদিন

দেশজুড়ে জমে উঠেছে শারদীয় দুর্গোৎসব। প্রতিটি মণ্ডপ ও মন্দির ভক্ত, পূজারি ও দর্শনার্থীর ভিড়ে ঠাসা।

আজ মহাষ্টমী ও কুমারীপূজা। শারদীয় দুর্গোৎসবের অন্যতম আকর্ষণ এ কুমারীপূজা। শাস্ত্রমতে কোনো কুমারী কন্যাকে দেবীরূপে বহুবিধ অলঙ্কারে সজ্জিত করে মাতৃজ্ঞানে আরাধনা করাই এ কুমারীপূজা। রাজধানীর গোপীবাগে রামকৃষ্ণ মিশন মঠ মন্দিরে এ কুমারীপূজা অনুষ্ঠিত হবে বেলা ১১টায়। রাজধানী ছাড়াও নারায়ণগঞ্জ, দিনাজপুরসহ কয়েকটি মঠ ও মন্দিরে কুমারীপূজা অনুষ্ঠিত হবে। গতকাল মহাসপ্তমীর দিনে সকালে মণ্ডপে মণ্ডপে ত্রিনয়নী দেবী দুর্গার চক্ষু দান করা হয়। পরে দেবীর নবপত্রিকা প্রবেশ, স্থাপন, সপ্তাদি কল্পারম্ভ ও বিহিত পূজা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর পুষ্পাঞ্জলি, প্রসাদ বিতরণ ও ভোগ আরতির জন্য  সকাল থেকেই সনাতন ধর্মের নারী-পুরুষ, শিশু-কিশোর ও বৃদ্ধ-বৃদ্ধারা মণ্ডপ ও মন্দিরগুলোয় সমবেত হন। পৃথিবীর মঙ্গল ও শান্তি কামনায় চলে দেবীর প্রার্থনা। ভক্তদের ভিড় আর উলুধ্বনি, ঢাক-ঢোল, কাঁসর-ঘণ্টার শব্দ, চণ্ডীপাঠ, সংগীতের স্নিগ্ধ সুরের ধারায় গতকাল দেশের জাতীয় মন্দির ঢাকেশ্বরীতে সৃষ্টি হয় উৎসবমুখর পরিবেশ। শরতের নির্মল সকালে দফায় দফায় দেবীর চরণে অঞ্জলি প্রদান করেন মায়ের কৃপাপ্রার্থী ভক্তরা। বরাবরের মতোই এবারের পূজায় প্রধান পুরোহিত রঞ্জিত চক্রবর্তী। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত চলে নবপত্রিকা প্রবেশ, স্থাপন, সপ্তাদি কল্পারম্ভ, বিহিত পূজা, পুষ্পাঞ্জলি, প্রসাদ বিতরণ, আরতি ও সন্ধ্যাপূজা। ঢাকেশ্বরী মন্দিরের পুরোহিত রঞ্জিত চক্রবর্তী জানান, ‘মহাষ্টমীতে আজ (রবিবার) সকাল ৭টা ৪৫ মিনিটে দেবীর মহাষ্টমী কল্পারম্ভ ও মহাষ্টমী বিহিত পূজা শুরু হবে। এরপর পুষ্পাঞ্জলি ও প্রসাদ বিতরণ শেষে বিকাল ৫টা ৩৯ থেকে সন্ধ্যা ৬টা ২৭ মিনিটের মধ্যে সন্ধিপূজা অনুষ্ঠিত হবে। ’ নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তাব্যবস্থা নিশ্চিত করতে ঢাকেশ্বরী মন্দিরের আশপাশ ঘিরে লাগানো হয়েছে ক্লোজ-সার্কিট ক্যামেরা। পুলিশ, র‌্যাব ও সাদা পোশাকের গোয়েন্দা সদস্যরা সার্বক্ষণিক নিয়োজিত আছেন। মহানগর সর্বজনীন পূজা কমিটির সাধারণ সম্পাদক শ্যামল কুমার রায় বলেন, পুলিশ ও র‌্যাবের সঙ্গে মহানগর পূজা কমিটির স্বেচ্ছাসেবকরাও কাজ করছেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow