Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১১ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১১ অক্টোবর, ২০১৬ ০৩:০৭
২০ বাংলাদেশিকে ফেরত পাঠিয়েছে মিয়ানমার
টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি

মিয়ানমারে আটকা পড়া ২০ বাংলাদেশিকে ফেরত পাঠিয়েছে মিয়ানমার ইমিগ্রেশন বিভাগ। এদের মধ্যে দুই শিশুও রয়েছে বলে জানা গেছে।

টেকনাফ স্থল বন্দরের ইমিগ্রেশন কর্মকর্তার (ভারপ্রাপ্ত দায়িত্বে) আনোয়ার হোসেন জানান, দুদিন ধরে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার ইমিগ্রেশন যাত্রীর যাতায়ত বন্ধ রয়েছে। তবে দুই দেশে গমনকারী যাত্রীরা আটকা পড়ে যায়। গতকাল সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে মিয়ানমার ট্রলার যোগে বাংলাদেশি শিশুসহ ২০ যাত্রীকে ফেরত পাঠানো হয়েছে। মিয়ানমারের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে পরবর্তীতে ইমিগ্রেশন চালু হবে বলে জানিয়েছেন। গত শনিবার গভীর রাতে মংডুতে সীমান্ত রক্ষী বাহিনী (বিজিপি) পুলিশের কয়েকটি ক্যাম্পে হামলার ঘটনায় দ্বিতীয় দিনের মতো টেকনাফ সীমান্তের ইমিগ্রেশন ও ট্রানজিট পাস বন্ধ রয়েছে। ফলে ইমিগ্রেশন হয়ে মিয়ানমারে যাওয়া প্রায় ২০ বাংলাদেশি আটকা পড়ে যায়। এদিকে দ্বিতীয় দিনের মতো টেকনাফ সীমান্তে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবির) টহল জোরদার রয়েছে। তবে অনাকাঙ্খিত ঘটনা এড়াতে নাফ নদীতে মাছ ধরার সব নৌযান ও  জেলেদের মাছ শিকারে মৌখিক নিষেধাজ্ঞা বলবৎ রাখা হয়। তাছাড়া টেকনাফ পৌরসভার চৌধুরী পাড়া ট্রানজিট পাস দ্বিতীয় দিনের মতো বন্ধ ছিল বলে জানা গেছে। মিয়ানমার থেকে ফেরত আসা বাংলাদেশি সিরাজুল ইসলাম ও উসমান জানান, গত শনিবার মিয়ানমারে ঘটনার পর থেকে আতঙ্কের মধ্যে ছিলাম। এমনকি কারও সঙ্গে কোনো ভাবে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

গতকাল মিয়ানমার ইমিগ্রেশন বিভাগ আমাদের বাংলাদেশে ফেরত পাঠানোর ব্যবস্থা করে। তবে বিকালে মিয়ানমার একটি ট্রলারে দুই শিশুসহ ২০ জনকে উঠিয়ে বাংলাদেশে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। দেশে চলে আসতে পেরে আল্লাহর কাছে শুকরিয়া জ্ঞাপন করছেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow