Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : সোমবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৬ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:৪২
ফারুক হত্যা মামলা
এমপি রানার জামিন আবেদন নামঞ্জুর
টাঙ্গাইল প্রতিনিধি

টাঙ্গাইলে আওয়ামী লীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা ফারুক হত্যা মামলায় আসামি সংসদ সদস্য আমানুর রহমান খান রানার জামিন নামঞ্জুর করেছে আদালত। গতকাল টাঙ্গাইলের জেলা ও দায়রা জজ আদালতে আসামিদের আইনজীবীরা আদালতে জামিনের আবেদন করেন। শুনানি শেষে বিচারক আবুল মনসুর মিয়া জামিন নামঞ্জুর করেন। এদিকে আলোচিত এ হত্যা মামলার আসামিরা ফারুক হত্যার বিচার দাবিতে আন্দোলনরত জেলা আওয়ামী লীগের নেতাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র শুরু করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। দুপুরে টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে এ অভিযোগ করেন জেলা আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা। সংবাদ সম্মেলনে জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও টাঙ্গাইল পৌরসভার মেয়র জামিলুর রহমান মিরন লিখিত বক্তব্যে বলেন, ফারুক হত্যার বিচার দাবিতে যারা ভূমিকা পালন করছেন, তাদের বিরুদ্ধে মামলার আসামিরা বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন তথ্য সরবরাহ করে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন। সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নিহত ফারুক আহমেদের স্ত্রী জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক নাহার আহমেদ, সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুজ্জামান সোহেল, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক তানভীর হাসান, জেলা বাস-কোচ মালিক সমিতির মহাসচিব গোলাম কিবরিয়া প্রমুখ। উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের ১৮ জানুয়ারি মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমেদকে দুর্বৃত্তরা হত্যা করে তার বাসার সামনে লাশ ফেলে রাখে। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী নাহার আহমেদ বাদী অজ্ঞাতদের আসামি করে টাঙ্গাইল মডেল থানায় মামলা করেন। পরে গ্রেফতার দুই আসামির স্বীকারোক্তিতে হত্যায় এমপি আমানুর রহমান খান রানা ও তার তিন ভাইয়ের নাম উঠে আসে। পুলিশ তদন্ত শেষে এমপি রানা ও তার তিন ভাইসহ ১৪ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করে। এমপি আমানুর রহমান খান রানা ১৮ সেপ্টেম্বর আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করলে আদালত তা নামঞ্জুর করে তাকে জেল হাজতে পাঠায়। পরদিন টাঙ্গাইল জেলা কারাগার থেকে তাকে গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগারে স্থানান্তর করা হয়।

up-arrow