Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৯ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:২৮
বদির দুর্নীতি মামলার রায় ২ নভেম্বর
আদালত প্রতিবেদক

কক্সবাজার-৪ আসনের আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদির বিরুদ্ধে করা অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলার রায় ঘোষণার জন্য ২ নভেম্বর দিন ধার্য করেছে আদালত। যুক্তিতর্ক শেষে গতকাল ঢাকার তৃতীয় বিশেষ জজ আদালতের বিচারক আবু আহম্মেদ জমাদার রায়ের এ দিন ধার্য করেন।

ওই আদালতের পেশকার আরিফুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, ২০১৫ সালের ৮ সেপ্টেম্বর অভিযোগ গঠনের মধ্য দিয়ে এ মামলার বিচারকাজ শুরু হয়। রায় ঘোষণার দিন ধার্যের আগে রাষ্ট্রপক্ষে ১৫ সাক্ষীর মধ্যে ১৩ জনের সাক্ষ্য নিয়েছে আদালত। এর আগে দুর্নীতির মাধ্যমে সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দুদকের উপপরিচালক আবদুস সোবহান ২০১৪ সালের ২১ আগস্ট রাজধানীর রমনা থানায় এ মামলা করেন। গত বছরের ৭ মে তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের উপপরিচালক মঞ্জিল মোর্শেদ ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে এমপি বদির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আইনজীবী মাহমুদ হোসেন জাহাঙ্গীর সাংবাদিকদের জানান, ২০০৮ সালে বদির সম্পদের পরিমাণ ছিল ৪৯ লাখ ৭৯ হাজার টাকা। ২০১৩ সালে তিনি যে আয়কর বিবরণী দাখিল করেন এতে তার সম্পদের পরিমাণ ১৬ কোটি ৬ লাখ ৯৬ হাজার টাকা। এ কারণে দুদক সম্পদের বিবরণী চেয়ে তাকে নোটিস দেয়। নোটিস পাওয়ার পর তিনি ৫ কোটি ২০ লাখ ১৪ হাজার ৫৮৩ টাকার সম্পদের বিবরণী দাখিল করেন। বাকি ১০ কোটি ৮৬ লাখ টাকার তথ্য তিনি গোপন করেন।

মামলার নথিসূত্রে জানা গেছে, আবদুর রহমান বদি জ্ঞাতআয়বহির্ভূত ১০ কোটি ৮৬ লাখ ৮১ হাজার ৬৬৯ টাকার সম্পদের তথ্য গোপন করে বিবরণীতে মিথ্যা তথ্য দেন। দুদকের অনুসন্ধানে দেখা যায়, অবৈধভাবে অর্জিত সম্পদের বৈধতা দেখানোর জন্য কম মূল্যে সম্পদ ক্রয় দেখিয়ে ১ কোটি ৯৮ লাখ ৩ হাজার ৩৭৫ টাকা বেশি মূল্যে বিক্রি দেখানো হয়েছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow