Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শনিবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২১ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:৪৪
নেতৃত্বে দেশপ্রেমিক ত্যাগীদের চাই
কাজী ফিরোজ রশীদ
নেতৃত্বে দেশপ্রেমিক ত্যাগীদের চাই

জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট কাজী ফিরোজ রশীদ বলেছেন, ‘জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সঙ্গে সংগঠন করার সৌভাগ্য আমার হয়েছিল। বঙ্গবন্ধুর কাছে থেকে লক্ষ্য করেছি আওয়ামী লীগের জন্মই হয়েছিল জনগণের জন্য। সে জন্য আওয়ামী লীগের কাছে মানুষের প্রত্যাশা অনেক বেশি। তাই ঐতিহ্যবাহী এ সংগঠনে দেশপ্রেমিক ত্যাগী নেতারা নেতৃত্বে আসবেন—এমনটাই প্রত্যাশা করি।’ আওয়ামী লীগের সম্মেলন উপলক্ষে বাংলাদেশ প্রতিদিনকে দেওয়া প্রতিক্রিয়ায় এমনটাই ব্যক্ত করেছেন সাবেক এই মন্ত্রী। অ্যাডভোকেট কাজী ফিরোজ রশিদ বলেন, ‘আওয়ামী লীগের কাছে মানুষের এখন প্রত্যাশা অনেক বেশি। এ প্রত্যাশা এখন শুধু বাংলাদেশের অভ্যন্তরে সীমাবদ্ধ নেই। আমরা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে গোটা বিশ্বকে শান্তির ছায়াতলে দেখতে চাই। কারণ প্রতিবেশী দেশ ভালো না থাকলে আমরাও ভালো থাকব না। আর এ দায়িত্ব বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকেই নিতে হবে। এরই মধ্যে শেখ হাসিনা বিশ্ব নেতাদের মধ্যেও একটি অবস্থান তৈরি করতে পেরেছেন।’ ঢাকা-৬ আসনের এই সংসদ সদস্য বলেন, ‘জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসমাপ্ত সব স্বপ্ন পূরণ করে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীকে শান্তির বার্তা নিয়ে সারা পৃথিবীতে ছড়িয়ে পড়তে হবে। কারণ গোটা বিশ্ব এখন এক ছাতার নিচে।’সাবেক এই ছাত্রলীগ নেতা আরও বলেন, ‘শুধু জননেত্রীর আকাশচুম্বি ছত্রছায়ায় থাকলেই নেতৃত্বে আনা উচিত হবে না। নতুন নেতৃত্বে যেন কোনো সাম্প্রদায়িক শক্তির অনুপ্রবেশ ঘটতে না পারে, সে ব্যাপারে সজাগ থাকতে হবে। দেশপ্রেমিক নাগরিকদের পাশাপাশি দলের দুর্দিনে যারা সক্রিয় ছিলেন—তাদেরও মূল্যায়ন করতে হবে। তাদের সামনে তুলে আনতে হবে। তাদের অবশ্যই সমাজে গ্রহণযোগ্যতা থাকতে হবে, পরিশীলিত হতে হবে, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী হতে হবে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ধারণ করতে হবে। কমিটিতে নবীন-প্রবীণের সমন্বয় থাকতে হবে।’

 

এই পাতার আরো খবর
up-arrow