Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১৯ নভেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, রবিবার, ১৯ নভেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : রবিবার, ৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:১৯
সরকার চালাচ্ছে পোশাকধারীরা
---— ফখরুল
নিজস্ব প্রতিবেদক

সরকারের সমালোচনা করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, এখন তো আওয়ামী লীগ সরকার চালাচ্ছে না। সরকার চালাচ্ছে পোশাকধারী লোকেরা।

তারা আজকে সবকিছু নিয়ন্ত্রণ করছে। যার ফলে রাজনৈতিক কোনো চিন্তাভাবনা আসছে না।

গতকাল দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ মন্তব্য করেন। অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য দল নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন ও সহায়ক সরকারের দাবিতে ঢাকা মহানগর জাগপা এ সমাবেশের আয়োজন করে। ঢাকা মহানগর জাগপার সভাপতি আসাদুর রহমান খানের সভাপতিত্বে জাগপা সভাপতি শফিউল আলম প্রধান, সাধারণ সম্পাদক খন্দকার লুত্ফর রহমান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। মির্জা ফখরুল বলেন, এই আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে রাজনীতিক ও সাংবাদিকদের যেভাবে হত্যা, গুম, হয়রানি, অপমান, নির্যাতন করা হয়েছে, তা আর কোনো সরকারের আমলে হয়নি। খালেদা জিয়ার মামলা সম্পর্কে মির্জা ফখরুল বলেন, গত পরশু (বৃহস্পতিবার) বেগম খালেদা জিয়ার মামলার হাজিরা ছিল আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে বিশেষ আদালতে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের উপস্থিতি দেখে মনে হয়েছে যেন যুদ্ধক্ষেত্র। র‌্যাব, পুলিশ, আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন, মোটরসাইকেল, বন্দুক, জলকামান, প্রিজন ভ্যান এমনভাবে রাখা হয়েছিল যেন পৃথিবীর সবচেয়ে বড় টেরোরিস্টকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

এটা কোন ধরনের রাজনীতি? বিএনপি মহাসচিব বলেন, আওয়ামী লীগ রাজনৈতিকভাবে আজ এতটাই দেউলিয়া হয়ে গেছে, রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে অন্যায় ও মিথ্যা অভিযোগে দায়ের মামলাকে অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করছে। তারা এখন গ্রাম্য মোড়লের মতো আচরণ করছে। তিনি আরও বলেন, নির্বাচন কমিশনের জন্য সার্চ কমিটি গঠনে নিরপেক্ষতা বজায় রাখা হয়নি। সার্চ কমিটি নিয়ে আমরা সন্তুষ্ট হতে পারিনি। এ কমিটিতে সরকারের সঙ্গে সরাসরি সম্পর্ক, সরকারি সুবিধাপ্রাপ্ত, সরকারি কাজে নিয়োজিত এমন লোকও রয়েছেন। তারা নিরপেক্ষ সিদ্ধান্ত নিতে পারেন না, তারপরও আমরা তা মেনে নিয়েছি। নাম চাওয়া হয়েছিল, সার্চ কমিটির কাছে নাম দিয়েছি। কারণ আমরা গণতন্ত্রকে সম্পূর্ণভাবে সুসঙ্গত অবস্থায় দেখতে চাই। রাজনৈতিক সংকট দূর করে সুষ্ঠু অবস্থায় ফিরে আসার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান মির্জা ফখরুল। তিনি আরও বলেন, বন্দুকের গুলি দিয়ে ভোট পাওয়া যায়। জনগণের মন পাওয়া যায় না। শুধু নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন নয়, নির্বাচনকালে নিরপেক্ষ সরকারও গঠন করতে হবে। সর্বোপরি সবার কাছে একটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের আয়োজন করতে হবে। তা না হলে জনগণ মেনে নেবে না। তিনি বলেন, গণতন্ত্রের কথা বলার জন্য যদি আমাকে ফাঁসিতে যেতে হয় যাব, তারপরও গণতন্ত্রের কথাই বলব। আওয়ামী লীগের উদ্দেশে মির্জা ফখরুল আরও বলেন, ‘আপনারা নিজেরাই তত্ত্বাবধায়ক সরকারের জন্য আন্দোলন করেছিলেন। এখন যখন দেখছেন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের মাধ্যমে নির্বাচন হলে আর জিতবেন না, তখনই আইন করে তা পরিবর্তন করলেন। আওয়ামী লীগ ডুগডুগি বাজিয়ে নির্বাচন করে ক্ষমতায় টিকে থাকতে চায়।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow