Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:১২
প্রানেরমেলা প্রতিদিন
মেলায় প্রাণের ছোঁয়া
মোস্তফা মতিহার
মেলায় প্রাণের ছোঁয়া

নতুন বইয়ের মন মাতানো গন্ধে আর বইপ্রেমীদের সরব উপস্থিতিতে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে এখন সুন্দরের জয়জয়কার। প্যাভিলিয়ন ও স্টলে বইয়ের পসরা সাজিয়ে বিক্রয়কর্মীরা ব্যস্ত বিকিকিনিতে।

পাঁচ দিন পর গতকাল ষষ্ঠ দিনে মেলার গ্রহণের কাল কেটেছে। ধীরে ধীরে বিক্রি বাড়তে শুরু হয়েছে বলে প্রকাশক ও লেখকরাও আশাবাদী হয়ে উঠেছে। বিকাল ৩টায় মেলার দ্বার খোলার পর বইপ্রেমীরা ভিড় জমায় মেলা প্রাঙ্গণে। দর্শনার্থীদের পাশাপাশি ক্রেতাদের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে বলে মেলা নিয়ে আশাবাদী হয়ে উঠেছেন প্রকাশকরা। গতকাল হঠাৎ করে বিকিকিনি বেড়ে গেছে বলে এবারের মেলা নিয়ে প্রকাশকরাও আশাবাদী হয়ে উঠেছে। ঐতিহ্য প্রকাশনীর ব্যবস্থাপক আমজাদ হোসেন কাজল বলেন, গত কয়েকদিনের তুলনায় আজ (সোমবার) বিক্রি অনেকটা বেড়েছে। মেলা জমতে একটু সময়তো লাগেই। মেলায় ভালো বই যত বেশি আসবে বিক্রিও তত বেশি হবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি। আমজাদ হোসেন কাজল আরও বলেন, বিক্রি কেমন হচ্ছে সেটা বড় বিষয় নয়, ভালো বই প্রকাশের পরিসংখ্যানটা কি সেটাই বিবেচ্য বিষয়। যেনতেন বই বেশি প্রকাশ হলেও যেমন বিক্রি বাড়বে না ঠিক তেমনি মানসম্পন্ন বই কম প্রকাশ হলেও বিক্রি বাড়বে না। বিক্রি বাড়ানোর জন্য আর পাঠকদের ধরে রাখতে হলে অবশ্যই ভালো বই বেশি বেশি প্রকাশ করা উচিত। বাংলা একাডেমির তথ্য কেন্দ্র থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী গত রবিবার মেলার ৫ম দিন পর্যন্ত মোট ৩৬১টি বই প্রকাশিত হয়েছে। এর মধ্যে গল্পের বই মোট ৫৬টি, উপন্যাস ৫৮টি, প্রবন্ধ ১৫টি, কবিতা ৯৪টি, গবেষণাধর্মী ৭টি, ছড়ার বই ১২টি, শিশুসাহিত্য ১১টি, জীবনী ৬টি, মুক্তিযুদ্ধ ১৭টি, নাটক ৩টি, বিজ্ঞান ৫টি, ভ্রমণ বিষয়ক ৮টি, ইতিহাস ৪টি, রম্য/ধাঁধা ১টি, বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনী ৮টি এবং অন্যান্য বিষয়ের ওপর ৫৬টি বই প্রকাশিত হয়েছে। মেলার ৫ম দিন গত রবিবার পর্যন্ত প্রকাশিত উল্লেখযোগ্য বইগুলো হলো পাঞ্জেরি পাবলিকেশন্স প্রকাশিত ইমদাদুল হক মিলনের ‘বাঘের লেজ দিয়ে কান চুলকানো’ ও মুহম্মদ জাফর ইকবালের ‘আবারও টুনটুনি ও আবারও ছোটাচ্চু’, আফসার ব্রাদার্স প্রকাশিত মুহম্মদ জাফর ইকবালের ‘তারুণ্যের এপিঠ ওপিঠ’, অনন্যা থেকে প্রকাশিত মোস্তফা কামালের ‘প্রিন্স উইলিয়ামের আংটির খোঁজে’ ও ‘কিছু হাসি কিছু রম্য’, এ ছাড়া কাকলী থেকে প্রকাশিত হয়েছে হুমায়ূন আহমেদের ‘শ্রেষ্ঠ মিসির আলী’, উৎস এনেছে ইমদাদুল হক মিলনের ‘ছোট্ট হরিণ ও ইলিশ মাছ’। মাহবুবুল হক শাকিলের ‘জলে খুঁজি ধাতব মুদ্রা’ : অন্বেষা থেকে প্রকাশিত হলো প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী সদ্য প্রয়াত কবি মাহবুবুল হক শাকিলের ৩য় কাব্যগ্রন্থ ‘জলে খুঁজি ধাতব মুদ্রা’। গতকাল বিকালে বাংলা একাডেমির কবি শামসুর রাহমান সেমিনার কক্ষে বইটির মোড়ক উন্মোচন করা হয়। প্রকাশনা অনুষ্ঠানে বইটি নিয়ে আলোচনা করেন : কবি হেলাল হাফিজ, হাবীবুল্লাহ সিরাজী, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপু মনি, মাহবুবুল হক শাকিলের স্ত্রী অ্যাডভোকেট নিলুফার আনজুম পপি, তার কন্যা মৌমি ও বইটির প্রকাশক শাহাদাত হোসেন। নতুন বই : বাংলা একাডেমির তথ্য কেন্দ্র থেকে প্রাপ্ত তথ্যানুযায় গতকাল মেলার ষষ্ঠদিনে ৯০টি নতুন বই প্রকাশিত হয়েছে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য বইগুলো হলো : অন্যপ্রকাশ থেকে প্রকাশিত হুমায়ূন আহমেদের ‘হুমায়ূন আহমেদ রচনাবলী নবম ও দশম খণ্ড’, একই প্রকাশনা থেকে সৈয়দ শামসুল হক অনূদিত ‘হ্যামলেট’, অনন্যা থেকে ইমদাদুল হক মিলনের ‘নয়মাস’, ঐতিহ্য থেকে প্রকাশ হয়েছে আবদুল মান্নান সৈয়দের ‘সুধীন্দ্রনাথ দত্ত : কালো সূর্যের নিচে বহ্ন্যুৎসব’।

মূল মঞ্চ : গতকাল বিকাল ৪টায় গ্রন্থমেলার মূলমঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় হরিচরণ বন্দ্যোপাধ্যায় ও তার অভিধান : শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ড. স্বরোচিষ সরকার। আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন অধ্যাপক আহমদ কবির, অধ্যাপক মহাম্মদ দানীউল হক ও হাকিম আরিফ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ড. গোলাম মুরশিদ। সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন ফাতেমা-তুজ-জোহরা, সুজিত মোস্তফা, ইয়াসমিন মুশতারী এবং এ কে এম শহীদ কবীর পলাশ।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow