Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : বুধবার, ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০১
সাংবাদিক শিমুল হত্যা
মেয়র মিরুর রিমান্ড শুনানি ১৩ ফেব্রুয়ারি
সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে সাংবাদিক আবদুল হাকিম শিমুলের হত্যাকারী মেয়র হামিদুল হক মিরুসহ ছয় আসামির রিমান্ড শুনানির দিন ১৩ ফেব্রুয়ারি ধার্য করেছে আদালত। তদন্ত কর্মকর্তা মনিরুল ইসলামের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে শাহজাদপুরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট হাসিবুল হক এই দিন ধার্য করেন।

এদিকে গতকাল সকালে বেলকুচি উপজেলা থেকে হালিমুল হক মিরুর গাড়িচালক শাহীন আলমকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাকেও সাত দিনের রিমান্ড আবেদন চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে। অন্যদিকে মেয়র মিরুর ফাঁসির দাবিতে গতকালও শহরে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ ছাড়া সাংবাদিক শিমুলের ক্যামেরার খোঁজ এখনো মেলেনি। ক্যামেরাটি পাওয়া গেলে অনেক রহস্যের জট খুলে যাবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম জানান, মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে রিমান্ডের আবেদন করা হয়। বিকালে বিচারক ১৩  ফেব্রুয়ারি মেয়র মিরুর রিমান্ড শুনানির জন্য দিন ধার্য করেন। এ ছাড়া মেয়রের দুই ভাই পিন্টু ও মিন্টুসহ আটক আরও পাঁচ আসামির রিমান্ডের শুনানি ১৩ তারিখ ধার্য রয়েছে। তিনি জানান, বেলকুচি উপজেলার স্টারলিট বাস কাউন্টার থেকে সাংবাদিক শিমুল হত্যা মামলার সন্দিগ্ধ আসামি মেয়র মিরুর গাড়িচালক শাহিনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

মানববন্ধন : মানবাধিকার সংগঠন অধিকার ডিফেন্ডারের উদ্যোগে সাংবাদিক আবদুল হাকিম শিমুল হত্যার প্রতিবাদে শহরের বাজার স্টেশনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। মানববন্ধনে সাংবাদিকসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশ নেন।

খোঁজ মেলেনি কজ্ঝামেরার : গুলি লাগার আগমুহূর্ত পর্যন্ত একের পর এক ছবি তুলে যাচ্ছিলেন সাংবাদিক শিমুল। গুলি লাগার পর মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি। ওই সময় কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী ক্যামেরাসহ কাগজপত্র শিমুলের মামার হাতে তুলে দেন। কিন্তু ভাগ্নের শোকে মামা অজ্ঞান হয়ে পড়ায় ক্যামেরাটি উধাও হয়ে যায়। ছয় দিন পেরিয়ে গেলেও ক্যামেরার খোঁজ মেলেনি। সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন, সাংবাদিক শিমুলের ক্যামেরাটি পাওয়া গেলে কার গুলিতে তিনি মারা গেছেন, সে বিষয়টি পুরোপুরি পরিষ্কার হয়ে যেত। খুলত অনেক রহস্যের জট।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow