Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:২১
প্রানেরমেলা প্রতিদিন
ছন্দে ফিরছে আয়োজন
মোস্তফা মতিহার
ছন্দে ফিরছে আয়োজন

বাংলা একাডেমি এলাকায় প্রাণের বইমেলায় ছন্দ ফিরে আসতে শুরু করেছে। অষ্টম দিনে গতকাল মেলায় বিকিকিনি যেমন বেড়েছে, তেমন বেড়েছে সুশৃঙ্খল অংশগ্রহণ।

গতবারের চেয়ে এবারের মেলার সবকিছুই একটু ব্যতিক্রম। মেলার পরিধি, নান্দনিক সৌন্দর্য, নিরাপত্তা, মাতৃদুগ্ধ চত্বর, নতুন বইয়ের জন্য আলাদা স্টল এ পাঁচটি বিষয় এবারের মেলায় নতুন মাত্রা এনেছে। তবে বই প্রকাশের দিক দিয়ে গতবারের চেয়ে     এবারের মেলা পিছিয়ে রয়েছে। প্রথম দিকে বিক্রি নিয়ে প্রকাশকদের মাঝে হতাশা দেখা দিলেও গতকাল তারা বলেছেন, ১০ দিন যাওয়ার পর মেলা পুরোপুরি ছন্দময় হয়ে উঠবে।

মেলায় দেখা গেছে, নন্দিত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদ এখনো পাঠকদের হৃদয়জুড়ে রয়েছেন। গতকাল জনপ্রিয় শিশু সাহিত্যিক অধ্যাপক ড. জাফর ইকবাল স্ত্রী ইয়াসমিন হক ও তার ভাবী গুলতেকিন খানকে নিয়ে মেলায় ঢোকেন। তখনই অটোগ্রাফ শিকারিরা তাকে ঘিরে ধরেন।

শেখ হাসিনার জাতির উদ্দেশে ভাষণ : জাতিকে দিকনির্দেশনা ও ডিজিটাল সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড জাতির সামনে তুলে ধরার লক্ষ্যে বিভিন্ন সময়ে বিটিভিসহ স্যাটেলাইট চ্যানেলে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ২০০৯ থেকে চলতি বছরের ১২ জানুয়ারি পর্যন্ত এ ভাষণগুলো এবার গ্রন্থাকারে প্রকাশ করেছে স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রকাশনা সংস্থা বঙ্গবন্ধু বার্তা। গতকাল বিকালে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের মোড়ক উন্মোচন মঞ্চে ‘জাতির উদ্দেশে ভাষণ’ নামের এ বইটির মোড়ক উন্মোচন করেন বাংলাদেশ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট মোল্লা মো. আবু কাওছার। ১৭২ পৃষ্ঠার বইটির দাম ২০০ টাকা।

ওয়ান-ইলেভেন নিয়ে মোশাররফের বই : সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময়ের নানা বিষয়ের ওপর বই লিখেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। বাংলায় লেখা ‘জরুরি আইনের সরকারের দুই বছর (২০০৭-২০০৮)’ বইটি প্রকাশ করেছে আহমদ পাবলিশিং হাউস। চলতি মাসেই বইটি প্রকাশিত হয়েছে। প্রকাশক মেছবাহ উদ্দীন আহমদ। ৬৬ প্যারিদাস রোড, বাংলাবাজার, ঢাকা-১১০০। বইটির পৃষ্ঠা-৩৫৮, অধ্যায়-১৯, মূল্য-৬০০ টাকা। প্রকাশনা হাউস ও একুশে গ্রন্থমেলায় বইটি পাওয়া যাবে।

বইটিতে লেখক ওয়ান-ইলেভেন সময়কার দেশের সামাজিক, রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও আইনশৃঙ্খলার ক্ষেত্রে চরম বিপর্যয় ও নৈরাজ্যকর পরিস্থিতির বিষয়টি বিস্তারিত তুলে ধরেছেন।

নীতিমালা ভঙ্গ : অমর একুশে গ্রন্থমেলায় নীতিমালার একটি ধারা ভঙ্গের অভিযোগ উঠেছে বেশ কটি প্রকাশনীর বিরুদ্ধে। বাংলাদেশ জ্ঞান ও সৃজনশীল প্রকাশক সমিতির পক্ষ থেকেই আনা হয়েছে এ অভিযোগ। গ্রন্থমেলা নীতিমালার ৬.৪ ধারায় বলা হয়েছে, গ্রন্থমেলায় অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানগুলো কেবল তাদের নিজেদের প্রকাশিত ও পরিবেশিত বই বিক্রি করতে পারবে। পরিবেশিত বই একাধিক স্টলে থাকা যাবে না। গ্রন্থমেলা পরিচালনা কমিটির সদস্য ও বাংলাদেশ জ্ঞান ও সৃজনশীল প্রকাশক সমিতির সাবেক সভাপতি ওসমান গনি বলেন, ‘আমরা সমিতির পক্ষ থেকে বেশ কটি স্টলে গিয়ে ৬.৪ ধারাটির ব্যত্যয় দেখেছি। এটা সুস্পষ্টভাবে নীতিমালার লঙ্ঘন। আমরা এ নিয়ে বাংলা একাডেমিকে চিঠি দিয়েছি। একাডেমিকে বলেছি, দ্রুত ব্যবস্থা নিতে। তারা যদি ব্যবস্থা না নেয় তবে আমরা সংবাদ সম্মেলন করে সবাইকে জানাব। ’

নতুন বই : গ্রন্থমেলার তথ্যকেন্দ্রের তথ্যানুযায়ী, গতকাল মেলার অষ্টম দিনে ১০৯টি নতুন বই এসেছে। এর মধ্যে রয়েছে গল্প ১৬, উপন্যাস ২৭, প্রবন্ধ ৫, কবিতা ২৪, গবেষণা ২, শিশুসাহিত্য ৫, জীবনী ১, বিজ্ঞান ৩, ভ্রমণ ৪, ইতিহাস ২, চিকিৎসা/স্বাস্থ্য ১, রম্য/ধাঁধা ১, অনুবাদ ১, বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনী ১ এবং অন্যান্য বিষয়ের ওপর ১৬টি নতুন বই। এ ছাড়া গতকাল ১৪টি নতুন বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো চৈতন্য থেকে প্রকাশিত তরুণ কবি প্রান্ত পলাশের ‘আমার কীরাম জানি লাগে’; অন্যপ্রকাশ থেকে মোস্তফা কামালের ‘রূপবতী’।

মূল মঞ্চ : গতকাল গ্রন্থমেলার মূল মঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় ‘সরদার জয়েন উদ্দীনের জন্মশতবার্ষিকী’ শীর্ষক আলোচনা। এতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন অধ্যাপক বিশ্বজিৎ ঘোষ। আলোচক ছিলেন কথাসাহিত্যিক হরিশংকর জলদাস, অধ্যাপক বায়তুল্লাহ কাদেরী, সরদার জয়েন উদ্দীনের পুত্র জ্যোতি জয়েন উদ্দীন ও মোবাশ্বিরা ফারজানা মিথিলা। সভাপতিত্ব করেন ড. মোহাম্মদ জয়নুদ্দীন। সন্ধ্যার সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন নাদিরা বেগম, আবুবকর সিদ্দিক, আজগর আলীম ও সফিউল আলম রাজা।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow