Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ১৬ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, বুধবার, ১৬ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : শুক্রবার, ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:২৫
সহযোগী সংগঠনের রাজনীতি
নৌকার পক্ষে সাংগঠনিক টিম করছে যুবলীগ
নিজস্ব প্রতিবেদক

আগামী সংসদ নির্বাচনে নৌকার প্রার্থীদের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি করতে বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন আওয়ামী যুবলীগ। এ লক্ষ্যে সারা দেশে গঠন করা হবে সাংগঠনিক টিম।

এই টিম স্থানীয়ভাবে গণসংযোগ,  ভোটারদের সঙ্গে মতবিনিময় এবং ভোটকেন্দ্রভিত্তিক নির্বাচনী কমিটি গঠন করবে। প্রাথমিকভাবে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের উদ্যোগে নগরীতে ৬৫টি সাংগঠনিক টিম গঠন করা হয়েছে। টিমগুলো ইতিমধ্যে কাজ শুরু করেছে। জানা গেছে, যুবলীগ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরীর নির্দেশে সংগঠন এই কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। কিছুদিন আগে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দল ও সহযোগী সংগঠনের শীর্ষ নেতাদের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য সব পর্যায়ে প্রস্তুতি গ্রহণের নির্দেশ দেন। শেখ হাসিনার কাছ থেকে নির্দেশনা পাওয়ার পরপরই মাঠ গোছানোর উদ্যোগ নেয় কেন্দ্রীয় যুবলীগ। জানা গেছে, সংগঠনের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরীর নির্দেশে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগ তাদের আওতাধীন  ৫৭টি ওয়ার্ড ও ৮টি ইউনিয়নে সাংগঠনিক টিম গঠন করে। ওই টিমগুলো ইতিমধ্যে ভোটকেন্দ্রভিত্তিক কমিটি গঠনের প্রক্রিয়া শুরু করেছে। একই সঙ্গে সংশ্লিষ্ট এলাকায় সর্বস্তরের মানুষের সঙ্গে মতবিনিময় সভা করছে। সূত্র জানায়, দক্ষিণের অধীনের ৫৭টি ওয়ার্ড ও ৮ ইউনিয়নে কমিটির সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক ছাড়াও একজন বা ক্ষেত্রবিশেষে দুজন করে নগর নেতাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। পুরো টিমকে সমন্বয় করছেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট। প্রতি সপ্তাহে একবার করে ওই সমন্বয় কমিটির সভা করা হচ্ছে। আগামী মার্চের মধ্যে কমিটি গঠনের কাজ শেষ হলে কমিটির সদস্যদের নিয়ে তিন দিনব্যাপী কর্মশালা করা হবে।   দক্ষিণের ৬৫ টিমের মূল সমন্বয়ক ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট এ বিষয়ে বাংলাদেশ প্রতিদিনকে জানান, যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরীর নির্দেশে আমরা ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে বিশেষ টিম গঠন করে নির্বাচনী প্রস্তুতি শুরু করেছি। টানা আট বছরে বর্তমান সরকারের সাফল্যগুলো সর্বসাধারণের মাঝে তুলে ধরতে পথসভা করছি। লিফলেট বিলি করা হচ্ছে। সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ড প্রজেক্টরের মাধ্যমে প্রদর্শনী করছি। একই সঙ্গে বিএনপি-জামায়াতের অশুভ রাজনীতির বিরুদ্ধে জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করছি। দক্ষিণের টিম সমন্বয়ক জানান, কোনো ব্যক্তির নয়, রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার পক্ষে কথা বলা এবং নৌকার পক্ষে জনমত সৃষ্টির লক্ষ্যেই কাজ করছে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগ। আগামী নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী যিনিই হবেন— তার পক্ষেই আমরা কাজ করব। তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায়, তা ছাড়া রাজপথে বিরোধী দলকেও মোকাবিলা করতে হচ্ছে না। এখন সংগঠনের নেতা-কর্মীদের কাজের মধ্যে না রাখলে জাতীয় নির্বাচনের আগে মাঠে নামাতে বেগ পেতে হবে। কাজেই এখন থেকেই নির্বাচনী প্রস্তুতির কাজ এগিয়ে রাখছি। তিনি জানান, আগামী মার্চের মধ্যে প্রাথমিক কাজ শেষ হবে। কেন্দ্রভিত্তিক কমিটির কাজ শেষ হলেই সদস্যদের নিয়ে তিন দিনব্যাপী কর্মশালার আয়োজন করা হবে।

যুবলীগের একাধিক নেতা জানিয়েছেন, শুধু উন্নয়ন করলেই হবে না। এই উন্নয়নগুলো জনগণের সামনে তুলে ধরতে হবে। আগামীতে আওয়ামী লীগ কী করতে চায় সে সব বিষয় মানুষকে আগাম জানাতে হবে। আর এই কাজগুলোই আওয়ামী লীগের  সহযোগী সংগঠন হিসেবে যুবলীগ করতে চায়। তারা রাজধানী ঢাকা থেকে শুরু করে প্রত্যন্ত অঞ্চলে সরকারের উন্নয়নগুলো জনগণকে জানানোর পাশাপাশি জনমত সৃষ্টি করবে। এ জন্য সংগঠনের চেয়ারম্যান সারা দেশে নির্দেশনা পাঠিয়েছেন। সংগঠনের প্রতিটি ইউনিটকে জনগণের কাছে গিয়ে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ করার জন্য কাজ করার নির্দেশ দিয়েছেন ওমর ফারুক চৌধুরী। একই সঙ্গে ভোটকেন্দ্রভিত্তিক কমিটিগুলোতে সমাজের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষকে অন্তর্ভুক্ত করতে বলা হয়েছে।   

এ প্রসঙ্গে যুবলীগের চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, সারা দেশে আমরা ভোটকেন্দ্রভিত্তিক কমিটি গঠনের কাজ শুরু করেছি। প্রথমে ঢাকায় এ কাজ শুরু করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে সারা দেশে করা হবে। আমাদের মূল কাজ হবে রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার নেতৃত্বের প্রতি জনমত সৃষ্টি করা। বিএনপি-জামায়াতের ষড়যন্ত্রমূলক কর্মকাণ্ড সম্পর্কে সাধারণ মানুষকে সজাগ করা। কারণ রাজনীতির মানে রাজপথ দখল বা অন্যের নামে কুৎসা রটানো নয়, রাজনীতি হচ্ছে আর্ট অব কম্প্রোমাইজ। আর এটার মধ্যে ম্যানেজমেন্ট থাকতে হবে। সংগঠন হলো আন্দোলন ও কর্মসূচি। আর কর্মসূচি যত হবে, সংগঠনের গতি ততই বৃদ্ধি পাবে, কর্মীর সৃষ্টি হবে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow