Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১৯ নভেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, রবিবার, ১৯ নভেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : শুক্রবার, ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:৩১
সিলেটের পর্যটন কেন্দ্রে বাড়ছে প্রাণহানি, অভাব নিরাপত্তার
শাহ্ দিদার আলম নবেল, সিলেট

রূপ-রঙে সিলেটকে অনিন্দ্য করে সাজিয়ে রেখেছে প্রকৃতি। কিন্তু সৌন্দর্যের এই লীলাভূমির পর্যটন কেন্দ্রগুলো অন্যরকম এক বিষাদ জড়িয়ে আছে।

গত ১০ বছরে সিলেটের পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে অন্তত অর্ধশত তাজা প্রাণের সমাধি ঘটেছে। পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থার অভাবে ক্রমাগত প্রাণহানি বাড়ছেই।

সিলেটের বিখ্যাত পর্যটন কেন্দ্রগুলোর মধ্যে রয়েছে জাফলং, বিছনাকান্দি, লালাখাল ও লোভাছড়া। প্রকৃতিকন্যা হিসেবে পরিচিত জাফলং। কিন্তু শান্ত-স্থির এ প্রকৃতিকন্যা যেন হুট করে হয়ে ওঠে ‘প্রাণহরণকারী’। জাফলংয়ের স্বচ্ছ পানির নদী পিয়াইনের চোরাবালিতে প্রতিনিয়ত প্রাণহানি ঘটে চলেছে। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে গত এক দশকে পিয়াইনে কতজন পর্যটকের প্রাণহানি ঘটেছে, সে পরিসংখ্যান নেই। তবে গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদের পরিসংখ্যান অনুসারে, গত ১০ বছরে পিয়াইনে অন্তত ৩৫ জন পর্যটকের মৃত্যু হয়েছে পানিতে ডুবে।

সিলেটের পর্যটনের তীর্থস্থান গোয়াইনঘাটের উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল হাকিম বলেন, ‘জাফলং, লালাখাল, লোভাছড়া প্রভৃতি পর্যটন কেন্দ্রে পর্যাপ্ত নিরাপত্তার অভাব রয়েছে।

এসব পর্যটন কেন্দ্রে ট্যুরিস্ট পুলিশ নিয়োগ করা জরুরি।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow