Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:৩৩
ভোলার মনপুরায় সংঘর্ষ
২০ জন গুলিবিদ্ধ পুলিশসহ আহত অর্ধশতাধিক
ভোলা প্রতিনিধি

ভোলার মনপুরায় অবৈধ দোকান উচ্ছেদের সময় পুলিশের সঙ্গে ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষে ব্যবসায়ী, পুলিশসহ অর্ধশতাধিক ব্যক্তি আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে পুলিশের গুলিতে আহত হয়েছেন ২০ জন এবং ব্যবসায়ীদের ইটপাটকেলের আঘাতে আহত হয়েছেন মনপুরা থানার ওসিসহ ৬ পুলিশ।

গতকাল সকালে হাজিরহাট বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

মনপুরা হাসপতাল সূত্র জানায়, গুলিবিদ্ধরা হলেন দৈনিক ভোরের পাতার মনপুরা প্রতিনিধি নজরুল ইসলাম, ব্যবসায়ী সোয়েব, মো. ইব্রাহীম, আবু তাহের, শরিফ, নুরুউদ্দিন, তরিকুল, আরিফ, হারুন, কবির, নাহিদ, হারুন, রাকিব, হোসেন, লিটন, মোসলেহ উদ্দিন, জামাল, নুরুদ্দিন, নুর ইসলাম, কুটি মাঝি, আবদুর রহমান। অপরদিকে ব্যবসায়ীদের ইট-পাটকেলে আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন ওসি শাহীন খান, এএসআই প্রদীপ, পুলিশ সদস্য জুনায়েদ, আরিফ, জসিম, আবদুল হালিম ও নাইম। জানা গেছে, হাজিরহাট বাজারের ফলের ব্যবসায়ী হারুন, আবদুর রহমান ও হাসানের দোকান উচ্ছেদের সময় ব্যবসায়ীদের মারধর করে পুলিশ। তখন ব্যবসায়ীরা ক্ষিপ্ত হয়ে দোকানপাট বন্ধ রেখে পুলিশের বিরুদ্ধে মিছিল বের করেন। এক পর্যায়ে পুলিশ কয়েক রাউন্ড শটগানের গুলি ছোড়ে। ক্ষুব্ধ ব্যবসায়ীরা তখন ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে পাল্টা জবাব দেন। এভাবে দেড় ঘণ্টাব্যাপী সংঘর্ষ চলে।   বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ব্যবসায়ী নেতাদের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। ঘটনার ব্যাপারে বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সম্পাদক মো. মহিউদ্দিন জানান, বিনা নোটিসে পুলিশ তিন ব্যবসায়ীর ফলের দোকান উচ্ছেদ ও মারধর করলে ব্যবসায়ীরা দোকানপাট বন্ধ রেখে মিছিল করেন। পুলিশ বিনা উসকানিতে ব্যবসায়ীদের ওপর গুলি চালায়। এতে ব্যবসায়ীসহ অর্ধশতাধিক ব্যক্তি আহত হন। মনপুরা থানার ওসি শাহীন খান জানান, রাস্তার ওপর ফলের দোকান উঠাতে গেলে ব্যবসায়ীরা ক্ষিপ্ত হয়ে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে গুলি করা হয়। ঘটনার সময় তিনিসহ ৬ পুলিশ আহত হয়েছেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow