Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, বুধবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : সোমবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:৩৯
বাবার বাসায় ফের তদন্ত কর্মকর্তা, যাবেন বাবুলের কাছেও
নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম
বাবার বাসায় ফের তদন্ত কর্মকর্তা, যাবেন বাবুলের কাছেও

সাবেক এসপি বাবুল আক্তার ও তার নিহত স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতুর দাম্পত্য জীবনের দিকে দৃষ্টি দিয়েছে পুলিশ। এ সম্পর্কে জানতে গতকাল মিতুর বাবা মোশারফ হোসেনের ঢাকার বাসায় যান মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের উপ-কমিশনার মো. কামরুজ্জামান।

পরে তিনি বাবুলের কাছেও যাবেন।

জানা গেছে, গতকাল এ তদন্ত কর্মকর্তা মিতুর বাবা, মা সাহেদা মোশারফ এবং মিতুর ছোট বোন নিনজার সঙ্গে কথা বলেন। প্রায় আড়াই ঘণ্টা অবস্থানকালে বাবুল-মিতুর দাম্পত্য জীবন, ব্যক্তি জীবন নিয়ে তিনি কথা বলেন। পরে কামরুজ্জামান জানান, ‘মামলার বিষয়ে কথা বলতে মিতুর বাবার বাসায় গিয়েছি। মূলত মামলা সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়ে কথা হয়েছে। এ হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে কিছু তথ্য অজানা ছিল। মিতুর পরিবারের সঙ্গে কথা বলে এ তথ্যগুলো জেনেছি। ’ 

মিতুর মা সাহেদা মোশারফ বলেন, ‘দুপুর সাড়ে ১২টায় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বাসায় আসেন। তিনি প্রায় আড়াই ঘণ্টা অবস্থান করেন। এ সময় তিনি মিতুর বাবা, ছোট বোন নিনজা এবং আমার সঙ্গে কথা বলেন। তিনি মিতু-বাবুলের বিয়ের দিন-তারিখ, বাবুল আক্তার ও মিতুর ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে কথা বলেন। এ ছাড়া তাদের দাম্পত্য জীবন নিয়ে বিভিন্ন কথা জিজ্ঞাসা করেন। আমরা যেসব তথ্য জানি সেসব দিয়েছি। ’ নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে, মিতু হত্যাকাণ্ডের পর দীর্ঘ সময় বাবুল আক্তারের পক্ষেই ছিলেন মিতুর বাবা-মা। বিভিন্ন বিষয়ে এরই মধ্যে বাবুল আক্তারের সঙ্গে তাদের দূরত্ব সৃষ্টি হয়। সম্প্রতি তারা এ হত্যাকাণ্ডের জন্য বাবুল আক্তারকেই দুষছেন। তারা বাবুল-মিতুর দাম্পত্য জীবন নিয়ে বিভিন্ন রকম তথ্য দিচ্ছেন। গণমাধ্যমে দেওয়া তাদের তথ্যের বিষয়ে জানতে মিতুর পরিবারের সঙ্গে কথা বলেন তদন্তকারী কর্মকর্তা। এসব বিষয়ে জানতে পরবর্তীতে বাবুল আক্তার ও তার পরিবারের সঙ্গেও কথা বলবেন এ কর্মকর্তা। প্রসঙ্গত, গত ৫ জুন চট্টগ্রাম নগরীর জিইসির মোড় এলাকায় ছেলেকে স্কুল বাসে তুলে দিতে যাওয়ার পথে দুর্বৃত্তদের হাতে খুন হন সাবেক এসপি বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু।

up-arrow