Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, শনিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : শুক্রবার, ৩ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ২ মার্চ, ২০১৭ ২৩:৫২
কুমিল্লায় নৌকা-ধানের শীষ মাঠে
নজরুল ইসলাম খানকে নিয়ে সাক্কুর মনোনয়ন জমা
নিজস্ব প্রতিবেদক ও কুমিল্লা প্রতিনিধি

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খানকে সঙ্গে নিয়ে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী মনিরুল হক সাক্কু। গতকাল দুপুরে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে তিনি মনোনয়নপত্র জমা দেন।

এ সময় তার সঙ্গে কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আমিন-উর রশিদ ইয়াসিনকে দেখা যায়নি। বিএনপির স্থানীয় নেতারা বলছেন, মামলার কারণে ইয়াসিন আসেননি। কুমিল্লায় মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় বিএনপির প্রার্থীর সঙ্গে দলীয় নেতাদের মধ্যে ছিলেন, দলের কেন্দ্রীয় নেতা শহীদ     উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, মোস্তাক মিয়া, আবদুল আউয়াল খানসহ স্থানীয় নেতারা। মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার পর মনিরুল হক সাক্কু বলেন, বিদায়ী মেয়র হিসেবে আমি প্রতিশ্রুতির ৭৫ ভাগ পূরণ করেছি। আবার নির্বাচিত হলে জলাবদ্ধতা ও যানজট নিরসনে কাজ করব। এ সময় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন, কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে করে নির্বাচন কমিশন তাদের ক্ষমতার পরিচয় দিবে বলে আশা করছি। তিনি বলেন, সাধারণ মানুষ সাক্কুর পক্ষে। সুষ্ঠু ভোট হলে সাক্কু বিপুল ভোটে জয়লাভ করবে। কুমিল্লা বিএনপির বিভেদ প্রসঙ্গে দক্ষিণ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আমিন-উর রশিদ ইয়াসিন বলেন, কুমিল্লার বিএনপিতে কোনো বিভেদ নেই। মনোনয়ন জমা দেওয়ার সময় না যাওয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, আমরা দলীয় অফিসে একত্র হয়েছিলাম। নির্বাচন অফিসে পাঁচজনের বেশি লোক যাওয়ার নিয়ম না থাকায় আমরা যাইনি।  

সাক্কুকে ২০ দলের সমর্থন : বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী মনিরুল হক সাক্কুকে সমর্থন দিয়েছে ২০-দলীয়  জোট। এ লক্ষ্যে প্রচারসহ জোটের সার্বিক কর্মকাণ্ড পরিচালনার জন্য জোটের অন্যতম শরিক লিবারেল  ডেমোক্রেটিক পার্টি-এলডিপির মহাসচিব রেদোয়ান আহমেদকে সমন্বয়কারী করা হয়েছে। গতকাল দুপুরে নয়াপল্টনে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সভাপতিত্বে জোটের এক  বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়। মনিরুল হক সাক্কুর পক্ষে প্রচারণা চালাতে বিএনপি একটি কেন্দ্রীয় সমন্বয় কমিটি গঠন করেছে। এই পরিচালনা কমিটির প্রধান সমন্বয়কারী করা হয়েছে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খানকে। এরই মধ্যে নজরুল ইসলাম খানের নেতৃত্বে একটি টিম কুমিল্লায় অবস্থান করছে। ২০-দলীয় জোটের বৈঠক সূত্রে জানা যায়, দেশের চলমান পরিস্থিতিতে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার উপস্থিতিতে ঢাকায় একটি সমাবেশ করার প্রস্তাব করা হয় বৈঠকে। এ বিষয়ে বিএনপি মহাসচিব ২০-দলীয় জোটের নেতাদের বলেছেন, বিষয়টি আলোচনায় আছে। তবে এই নিয়ে জোটের সভাপতি পর্যায়ের বৈঠকে সিদ্ধান্ত হবে। এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় পার্টির (কাজী জাফর)  মোস্তফা জামাল হায়দার, ইসলামী ঐক্যজোটের মাওলানা আবদুল করীম খান, বিজেপির আবদুল মতিন সাউদ, জাগপার খন্দকার লুত্ফর রহমান, সাম্যবাদী দলের সাঈদ আহমেদ, ন্যাপের  গোলাম  মোস্তফা ভুঁইয়া, কল্যাণ পার্টির এম এম আমিনুর রহমান, এনপিপির মোস্তাফিজুর রহমান  মোস্তফা, এনডিপির আবু তাহের, মুসলিম লীগের শেখ জুলফিকার বুলবুল চৌধুরী, ইসলামিক পার্টির আবুল কাশেম, পিপলস লীগের সৈয়দ মাহবুব হোসেন, খেলাফত মজলিসের মাওলানা মুহাম্মদ শফিকউদ্দিন, লেবার পার্টির সামসুদ্দিন পারভেজ, ন্যাপ-ভাসানীর  গোলাম  মোস্তফা আকন্দ, ডিএলের খোকন চন্দ্র দাশ, জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের মাওলানা ফজলুল করীম কাশেমী প্রমুখ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। তবে বৈঠকে জামায়াতের কোনো প্রতিনিধি ছিলেন না।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow