Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১৯ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, শনিবার, ১৯ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৭ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ৬ মার্চ, ২০১৭ ২৩:৫৩
বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ নিয়ে থ্রিডি ভিডিও ‘পিতা’
সাংস্কৃতিক প্রতিবেদক
বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ নিয়ে থ্রিডি ভিডিও ‘পিতা’

১৯৭১ সালের ৭ মার্চ রেসকোর্স ময়দানে (সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) জ্বালাময়ী ভাষণের মধ্য দিয়ে সমগ্র জাতিকে মুক্তির দিক নির্দেশনা দিয়েছিলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। জনসমুদ্রে দাঁড়িয়ে ঘোষণা করলেন, ‘এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম।

’ বঙ্গবন্ধুর বজ কণ্ঠের ৭ মার্চের সেই ভাষণটি উদ্দীপ্ত ও অনুপ্রাণিত  করেছিল বাঙালি জাতিকে। আর ৭ মার্চের সেই ভাষণ থেকেই মুক্তিকামী বাঙালি স্বাধীন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার দিক-নির্দেশনা পেয়েছিল, পেয়েছিল সংগ্রামের অনুপ্রেরণা। বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ঐতিহাসিক সেই ভাষণকে এবার থ্রিডি প্রযুক্তিতে রূপান্তর করা হয়েছে। ‘পিতা’ নামের এই থ্রিডি ভিডিওটি নির্মাণে মুখ্য ভূমিকা পালন করেছেন কাজী জসিমুল ইসলাম বাপ্পি। চোখে বিশেষ চশমা পরে প্রেক্ষাগৃহে আমন্ত্রিত অতিথি ও দর্শনার্থীরা থ্রিডি ভিডিওটি দেখেন। যেন একখণ্ড রেসকোর্স ময়দান (সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) তুলে ধরা হয়েছে থ্রিডিতে। গতকাল বিকালে বসুন্ধরা সিটি শপিং কমপ্লেক্সের স্টার সিনেপ্লেক্সে এই ভিডিও চিত্রের উদ্বোধনী প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়। প্রদর্শনীর উদ্বোধনীতে উপস্থিত ছিলেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক, চ্যানেল আইয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর, অভিনেতা ও নির্মাতা আফজাল হোসেন প্রমুখ। প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক জানান, থ্রিডি প্রযুক্তির এই ভিডিওচিত্রের প্রসার ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রদর্শনের জন্য সরকার সব ধরনের সহযোগিতা করবে।

ঝংকারের সুবর্ণ জয়ন্তী : কথামালা, গুণীজন সম্মাননা ও সাংস্কৃতিক আয়োজনের মধ্য দিয়ে প্রতিষ্ঠার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করেছে নৃত্য সংগঠন ঝংকার। সন্ধ্যায় শিল্পকলা একাডেমির সংগীত ও নৃত্যকলা কেন্দ্র মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এই আয়োজনে প্রধান অতিথি ছিলেন জয়যাত্রা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান হেলেনা জাহাঙ্গীর। ঝংকার ললিতকলা একাডেমির অধ্যক্ষ ফাতেমা কাশেমের সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ নৃত্যশিল্পী সংস্থার সভাপতি মীনু হক, সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান ও সমাজসেবী পারভীন হক। সমাজ ও সংস্কৃতির বিভিন্ন ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ অনুষ্ঠানে ছয় গুণীকে প্রদান করা হয় ঝংকার ললিতকলা একাডেমি সম্মাননা। সম্মাননাপ্রাপ্তরা হলেন : নৃত্যে মুনমুন আহমেদ ও সাজু আহমেদ, সমাজসেবায় প্রকৌশলী সাকিল খান, সফল উদ্যোক্তা রিয়াজ আহমেদ বাবু, শিক্ষায় মো. কামরুজ্জামান, স্বাস্থ্যসেবায় ডা. মো. আরিফ হোসেন।

আলোচনা ও সম্মাননা প্রদান শেষে সাংস্কৃতিক পর্বে দলীয় ও দ্বৈত নৃত্য পরিবেশন করেন আয়োজক সংগঠনের শিল্পীরা।

শিল্পকলায় ‘পাইচো চোরের কিচ্ছা’ :  গতকাল সন্ধ্যায় শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার মূল মিলনায়তনে মঞ্চায়ন হয় এই নাটকটি।

সংগৃহীত কাহিনী থেকে নাটকটির নাট্যরূপ ও নির্দেশনা দিয়েছেন কাজী চপল। বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন : কাজী শিলা, জাকারিয়া কিরণ, নাজমুল আহসান সাগর, মৌসুমী ইসলাম, দেবাশীষ ফণি, আবদুল্লাহ আল মামুন, কাজী সম্রাট প্রমুখ।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow