Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : শুক্রবার, ১৯ মে, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ১৮ মে, ২০১৭ ২৩:২৯
কৃষি সংবাদ
দিনাজপুরের লিচু এখন বাজারে
রিয়াজুল ইসলাম, দিনাজপুর
দিনাজপুরের লিচু এখন বাজারে

সবার মন জয় করা অনন্য স্বাদের টসটসে লাল দিনাজপুরী লিচু এখন বাজারে। আর দিনাজপুরী লিচু মানেই অন্যরকম মিষ্টি ও রসালো স্বাদ। বিভিন্ন জাতের লিচুর মধ্যে বেদানা, বোম্বাই, মাদ্রাজি, চায়না-থ্রি আর দেশি লিচু এখন গাছে গাছে। বাগানগুলোতে মৌ মৌ গন্ধ। দিনাজপুরী লিচুর গোটা দেশে চাহিদা-বাজার রয়েছে।

দিনাজপুরের নিউমার্কেটে ফলের আড়তে মাদ্রাজি লিচু উঠেছে। যদিও লিচু প্রকৃতভাবে পাকেনি তারপরেও বাজারে কদরের কমতি নেই। সময়ের আগে বাজারে আসা লিচুর স্বাদ তেমন পাওয়া না গেলেও চাহিদা কম নেই। আগামী সপ্তাহে পুরোদমে বাজারে নামতে শুরু করবে লিচু। তবে আবহাওয়ার কারণে এবার লিচুর ফলন কম হয়েছে বলে জানায় লিচু চাষিরা। বিরলের কাশিডাঙ্গার বেলালসহ চাষিরা জানায়, বাজারে মাদ্রাজি প্রতি শত লিচুর মূল্য ১৮০ থেকে ২০০ টাকা। যদিও পর্যাপ্তভাবে বেদানা ও চায়না থ্রিসহ অন্যান্য জাতের লিচু নামেনি। লিচু চাষি বেলাল উদ্দিন জানান, গত মৌসুমে আমার ১৯টি লিচু গাছে ৪ লাখ লিচু পাওয়া গেলেও এবার ৬০/৭০ হাজার লিচু পাওয়া যাবে। মুকুলের সময় বৃষ্টি-ঝড় হওয়ায় এ ফলন কমে গেছে। দিনাজপুর শহরের ফলমার্কেটের ইমন ফল ভাণ্ডার জানায়, লিচু বাজারে কেনাবেচা পুরোদমে শুরু হবে আগামী সপ্তাহে। বিরলের অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা আশরাফুল আলম জানান, এখানে বোম্বে লিচুর চাষ বেশি হয়। তবে এ জাতের লিচুটি এক বছর ভালো হলে পরের বছর একটু ফলন কমে যায়। তবে এরপরেও প্রতিটি গাছে শতকরা ৭০/৭৫ভাগ লিচু পাওয়া যাবে। এখন বাজারে নেমেছে মাদ্রাজি জাতের লিচু। লিচু পল্লী বলে খ্যাত মাসিমপুরের মোসাদ্দেক জানান, বাগানের গাছে থোকায় থোকায় লিচুতে আলতো সিদুর রঙে রঙিন হয়ে ডালে ডালে ঝুলছে। এবার ঝড়-বৃষ্টিতে ফলন কমে গেছে। জেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ জানায়, জেলায় ৪৭৭০ হেক্টর জমিতে ছোট-বড় নিয়ে প্রায় ৫ হাজার ৪১৮টি লিচুর বাগান রয়েছে। বাগান ছাড়াও কিছু সংখ্যক বাড়ি, বাড়ি সংলগ্ন ভিটা জমিতে ২/৪টি করে লিচু গাছ রয়েছে। দিন দিন লিচুর ফলন এবং দাম ভাল পাওয়ায় এ চাষের পরিমান বাড়ছে। বাগান ছাড়াও কিছু সংখ্যক বাড়ী, বাড়ী সংলগ্ন ভিটা জমিতে ২/৪টি করে লিচু গাছ রয়েছে। উল্লেখ্য,এক দশক ধরে বৃহত্তর দিনাজপুরের বিভিন্ন উপজেলায় লিচুর চাষাবাদ বাড়ছে। মৌসুমে রাজধানী থেকে লিচু ব্যবসায়ীরা বিভিন্ন বাগান থেকে সরাসরি প্রতিদিন ২৫/৩০ লাখ লিচু কিনে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে পাঠায়। যদিও এর বেচাকেনা এখনো পুরোদমে শুরু হয়নি।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow