Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : রবিবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২৩:১৬
ইন্টারকন্টিনেন্টাল খুলছে অবশেষে
উদ্বোধন ১৩ সেপ্টেম্বর, বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু হতে সময় লাগবে
নিজামুল হক বিপুল
ইন্টারকন্টিনেন্টাল খুলছে অবশেষে

অবশেষে আলোর মুখ দেখছে দেশের অন্যতম পাঁচতারকা হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টাল। আগামী ১৩ সেপ্টেম্বর হোটেলটি আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে উদ্বোধন হলেও চলতি বছরের নভেম্বর-ডিসেম্বরের আগে বাণিজ্যিক কার্যক্রমে যেতে পারছে না হোটেলটি। সংস্কার কাজের জন্য দেশের অন্যতম পাঁচতারকা এই হোটেল গত প্রায় চার বছরেরও বেশি সময় ধরে বন্ধ রয়েছে। দফায় দফায় সময় এবং ব্যয় বাড়লেও এখন পর্যন্ত কাজ শেষ হয়নি। যদিও বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটনমন্ত্রী গত ১৫ জুনের মধ্যেই হোটেল খুলে দিতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা দিয়েছিলেন। চেইন হোটেল শেরাটনের সঙ্গে চুক্তি বাতিলের পর পাঁচতারকা এই হোটেলটি পরিচালনার জন্য ২০১২ সালে ১৯ ফেব্রুয়ারি হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালের সঙ্গে চুক্তি হয় বাংলাদেশ সার্ভিসেস লিমিটেডের (বিএসএল)। এর আগে দুই বছর ‘রূপসী বাংলা’ নামে হোটেলটি পরিচালনা করে বিএসএল নিজেরাই। এরপর ইন্টারকন্টিনেন্টালের সঙ্গে চুক্তির শর্ত অনুযায়ী ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে হোটেলের সংস্কার কাজ শুরু হয়। ১৬ মাসের মধ্যে কাজ শেষ করার শর্তে তিনটি প্রতিষ্ঠান পৃথক পৃথক প্যাকেজে কাজ পায়। চুক্তি অনুযায়ী গত ২০১৫ সালের ডিসেম্বরের মধ্যেই সংস্কার কাজ শেষ হওয়ার কথা ছিল। ২০১৬ সালের জানুয়ারি এটি উদ্বোধনের কথা ছিল। কিন্তু ১৬ মাস তো দূরের কথা, বাস্তবতা হচ্ছে গত প্রায় চার বছরেরও বেশি সময় পার হলেও হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালের সংস্কার কাজ শেষ করতে পারেনি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানগুলো। হোটেলটির সংস্কারকাজ শুরুর সময় প্রকল্প ব্যয় ধরা হয়েছিল ৩২০ কোটি টাকা। কিন্তু গত চার বছরে দফায় দফায় সেই ব্যয় ৪০০ কোটি টাকা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭২০ কোটি টাকা। একই সঙ্গে বেড়েছে কাজের সময়সীমাও। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ২০১৬ সালের ডিসেম্বরে ঢাকাতে অনুষ্ঠিত নবম গ্লোবাল ফোরাম অন মাইগ্রেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (জিএফএমডি) সামিটের জন্য অফিসিয়াল হোটেল ছিল ইন্টারকন্টিনেন্টাল। কিন্তু নির্ধারিত সময়ে সংস্কার কাজ শেষ না হওয়ায় হোটেলটি ব্যবহার করতে পারেননি সংশ্লিষ্টরা। নির্ধারিত সময়ে কাজ শেষ না হওয়ায় গত চার বছরে হোটেলটি আর্থিকভাবে বড় ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, এর আগে বেশ কয়েকবার হোটেলটি খুলে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেও কোনোবারই সেই প্রতিশ্রুতি রক্ষা করতে পারেনি সংশ্লিষ্টরা। সর্বশেষ গত ফেব্রুয়ারি মাসে হোটেলটি খুলে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছিলেন হোটেলের জেনারেল ম্যানেজার জেমস পি ম্যাকডোনাল্ড। কিন্তু সেই সময়সীমায়ও হোটেলটি চালু করা যায়নি। এবার হোটেলটি উদ্বোধনের সময় নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ১৩ সেপ্টেম্বর। ওইদিন সন্ধ্যা ৭টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হোটেলটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন। তবে সংস্কারকাজ পুরোপুরি শেষ না হওয়ায় এটি চলতি মাসে বাণিজ্যিক কার্যক্রমে যেতে পারবে না বলে জানিয়েছে একাধিক সূত্র। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, এখনো যে পরিমাণ কাজ বাকি তাতে হোটেলটির অপারেশনে যেতে আরও অন্তত দুই থেকে তিন মাস সময় লাগবে। অর্থাৎ নভেম্বরের শেষ অথবা ডিসেম্বরের শুরুর দিকে হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টাল আনুষ্ঠানিকভাবে বাণিজ্যিক কার্যক্রমে যেতে পারবে।

up-arrow