Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : বুধবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২৩:০৬
বড় সংস্কার হচ্ছে আজমির শরিফের
নয়াদিল্লি প্রতিনিধি
বড় সংস্কার হচ্ছে আজমির শরিফের

রাজস্থান রাজ্যের আজমির শহরে অবস্থিত ‘আজমির দরগাহ শরিফ’ নামে খ্যাত খাজা মঈনুদ্দিন চিশতির ঐতিহাসিক দরগাহ সংস্কারে প্রায় সাত কোটি রুপি (ভারতীয় মুদ্রা) ব্যয় করা হবে। সংস্কার কাজের জন্য দরগাহ কমিটি, আজমির পৌরসভা ও হিন্দুস্থান জিংক কোম্পানির মধ্যে সমঝোতা স্মারকপত্র স্বাক্ষরিত হয়েছে। ‘খাজা বাবা’ নামে সুপরিচিত দরদাহ চত্বরে রয়েছে সাধক পুরুষ মঈনুদ্দিন চিশতির সমাধি। সমঝোতাপত্রের মূল উদ্দেশ্য হলো, ঐতিহাসিক দরগাহর সংস্কার এবং স্বচ্ছ ধর্মীয় স্থান হিসেবে একে রক্ষা করা। ২০১৬ সালে সূচিত স্বচ্ছ ভারত অভিযানের অংশ হিসেবে ভারতের একশটি সাংস্কৃতিক, ধর্মীয় স্থানকে ‘স্বচ্ছ স্থান’ করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। আজমির দরগাহ শরিফ এই পরিকল্পনাভুক্ত। এ অভিযানে দেশের প্রধান প্রধান শিল্পসংস্থাকে যুক্ত করা হয়েছে। দরগাহ কমিটি এবং খাদেমদের সঙ্গে আজমিরের জেলা প্রশাসক প্রকল্পটির প্রধান সমন্বয়কারী হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। দরগাহে ভক্তদের দেওয়া ফুলের স্তবক স্তূপাকারে জমা হয় প্রতিদিন। তাই প্রথমে দুটি মেশিন লাগানো হবে এই বিপুল পরিমাণ ফুলকে কমপোস করার জন্য। দরগাহের মধ্যে অবস্থিত ঝালরা পুকুরটির সংস্কার করে বাঁধ নির্মাণ করা হবে। কয়েকটি স্থানে নতুন করে মার্বেল বসানো হবে। দরগাহের শাহজানি ও নিজাম প্রবেশদ্বারকে পূর্বাবস্থায় আনা হবে। নিয়মিত মেঝে সাফ করার জন্য মেশিন ব্যবহার করা হবে। ভিড় নিয়ন্ত্রণের জন্য থাকবে আধুনিক ব্যবস্থা।

up-arrow