Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২৩:০৯
লঞ্চ মাস্টারকে জামিন না দেওয়ায় যা হলো
নিজস্ব প্রতিবেদক

অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) একটি মামলায় লঞ্চ মাস্টারের জামিন না হওয়ার প্রতিবাদে সদরঘাট পন্টুন থেকে কিছু লঞ্চ সরিয়ে নেন মাস্টাররা। এমভি আওলাদ-৭ লঞ্চের মাস্টারকে কারাগারে পাঠানোর ঘটনায় গতকাল সকাল থেকে প্রায় চার ঘণ্টা লঞ্চগুলো সরিয়ে রাখা হয়। পরে বেলা আড়াইটায় লঞ্চের মাস্টার ইসরাফিলের জামিন পাওয়ার খবরে খালি পন্টুনে লঞ্চগুলো ভেড়ানো হয়। বিআইডব্লিউটিএর যুগ্ম পরিচালক আলমগীর কবীর সাংবাদিকদের বলেন, পটুয়াখালী রুটের এমভি আওলাদ-৭ এর মাস্টার ইসরাফিল ২৯ আগস্ট একটি      মামলায় আদালতে হাজির হলে তাকে জামিন না দিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়। এই ঘটনার প্রতিবাদে সকাল ১০টার দিকে পন্টুন থেকে লঞ্চগুলো সরিয়ে ফেলা হয়। দুপুর আড়াইটার দিকে সকালে সরিয়ে নেওয়া লঞ্চগুলো আবার সদরঘাটে ভিড়তে শুরু করে। এমভি আওলাদ লঞ্চের মালিক আওলাদ হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, এক বছর আগে ফতুল্লায় লঞ্চটি একটি বাল্কহেডকে ধাক্কা দেয়। পরে নারায়ণগঞ্জ সদর থানার ওসি ও স্থানীয় চেয়ারম্যান বিষয়টি মিটমাট করেন। তারপরও বিআইডব্লিউটিএ মামলা দেয়। ওই মামলায় ইসরাফিলকে কারাগারে পাঠানো হয়েছিল।

up-arrow