Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২৩:২০
আকাশবীণার দরজা ভাঙা তদন্তে কমিটি
নিজস্ব প্রতিবেদক

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সে যুক্ত হওয়া নতুন উড়োজাহাজ আকাশবীণার জরুরি দরজার র‌্যাফট ভাঙার ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মহিবুল হক। গতকাল সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, মোস্তাফিজুর রহমান নামে একজন প্রকৌশলী ভুল বাটনে চাপ দেওয়ায় এ ঘটনা ঘটে। আমি যেটা শুনেছি এটা নাকি একবার ওপেন হলে দ্বিতীয়বার ব্যবহার করা যায় না, এটা ইমার্জেন্সি এক্সিট, নরমাল না। বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী এ কে এম শাহজাহান কামাল সাংবাদিকদের বলেন, কী কারণে এ ঘটনা ঘটেছে তা তদন্ত করা হচ্ছে। কারও গাফিলতি পাওয়া গেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এদিকে, আকাশবীণার যাত্রীদের নিরাপত্তার বিষয়টি মাথায় রেখে র‌্যাফটের ওই অংশ রিপ্লেসের আগ পর্যন্ত ৫২ যাত্রী কম পরিবহনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেন বিমানের চিফ অব ফ্লাইট সেফটি শোয়েব চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘মঙ্গলবার সকালে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের বোর্ডিং ব্রিজে লাগানো অবস্থায় অতিরিক্ত তাপের কারণে র‌্যাফটের অংশবিশেষ খুলে যায়। দরজা ভেঙে যাওয়ার কোনো ঘটনা ঘটেনি।’ গতকাল দুপুরে সিঙ্গাপুরে ড্রিমলাইনারের ট্রেনিং সেন্টার থেকে তিনি বলেন, ‘ফ্লাইট সেফটির প্রধান হিসেবে আমাকে বিষয়টি জানানো হয়েছে। এ জাতীয় টুকটাক ঘটনা যে কোনো নতুন এয়ারক্রাফট পরিচালনার প্রথম দিকে ঘটে। র‌্যাফট খুলে যায় টেম্পারেচারের (তাপমাত্রা) কারণে। তাপমাত্রা বেড়ে গেলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে এটি খুলে যায়, তখন জরুরি নির্গমন গেটও খুলে যায়।’ এরপরও নতুন উড়োজাহাজ অপারেশনের আগে সংশ্লিষ্টদের আরও বেশি সজাগ থাকা জরুরি বলে মনে করেন তিনি। গত মঙ্গলবার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ঢাকা থেকে সিঙ্গাপুরগামী ফ্লাইটটির বিশেষ ওই দরজার র‌্যাফট ভেঙে যায়। ভুল বাটনে চাপ দেওয়ার কারণে এ ঘটনা বলে জানান কর্মকর্তারা। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বহরে প্রথমবারের মতো যুক্ত হয় বোয়িং ৭৮৭ ড্রিমলাইনার। যার নাম দেওয়া হয় আকাশবীণা। ৫ সেপ্টেম্বর এর উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আমেরিকার বোয়িং কোম্পানির তৈরি ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনারটি যুক্তরাষ্ট্রের সিয়াটল পেনফিল্ড থেকে যাত্রাবিরতি ছাড়াই টানা সাড়ে ১৪ ঘণ্টা উড়ে ১৯ আগস্ট ঢাকায় পৌঁছায়। ‘আকাশবীণা’য় রয়েছে ২৭১টি আসন, যার মধ্যে ২৪টি বিজনেস ও ২৪৭টি ইকোনমি ক্লাস। এর রুট নির্ধারণ হয়েছে মালয়েশিয়া ও সিঙ্গাপুর।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow