Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : রবিবার, ১৩ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১২ জানুয়ারি, ২০১৯ ২২:৩৭
শঙ্কা কাটিয়ে চাঙ্গা শেয়ারবাজার
আলী রিয়াজ
শঙ্কা কাটিয়ে চাঙ্গা শেয়ারবাজার

নতুন বছরের শুরু থেকেই ঘুরে দাঁড়িয়েছে শেয়ারবাজার। নির্বাচনের পর বিনিয়োগকারীদের মধ্যে শঙ্কা কেটে গিয়ে এক ধরনের আস্থা ফিরে এসেছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের সব সূচক বেড়েছে। লেনদেনের হার বেড়েছে কয়েক গুণ। দুই সপ্তাহের ব্যবধানে প্রায় ৩০ হাজার কোটি টাকা বাজার মূলধন বেড়েছে। গত আট কার্যদিবসে শেয়ারবাজারে প্রায় ৪০০ পয়েন্ট সূচক বেড়েছে; যা আগের এক বছরেও বাড়েনি। লেনদেন ছাড়িয়েছে হাজার কোটি টাকার বেশি। তালিকাভুক্ত অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ারদর বেড়েছে। ২০১৮ সালের পুরো বছরেও পরিস্থিতি এমন ঊর্ধ্বমুখী দেখা যায়নি। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) পাঁচ কার্যদিবসে গড় লেনদেন হয়েছে ৯৮৫ কোটি টাকার; যা আগের সপ্তাহ থেকে ৩৭ শতাংশ বেশি। গত সপ্তাহে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স বেড়েছে প্রায় ৪ শতাংশ। প্রতিদিনই লেনদেন গড়ে বৃদ্ধি পাচ্ছে। বিদায়ী সপ্তাহে ডিএসইতে গড় ৯৮৫ কোটি ১৩ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে; যা আগের সপ্তাহ থেকে ২১৭ কোটি ৯৫ লাখ টাকা বা ৩৭.৩৬ শতাংশ বেশি। আগের সপ্তাহে গড় লেনদেন ছিল ৭১৭ কোটি ১৮ লাখ টাকা। এই ইতিবাচক ও চাঙ্গা অবস্থান ধরে রাখতে নতুন অর্থমন্ত্রী উদ্যোগী হবেন বলে আশা করছেন বিনিয়োগকারীরা। বাজার বিশ্লেষকরা বলছেন, নির্বাচনে বড় জয় রাজনৈতিক স্থিতিশীলতার ইঙ্গিত বহন করে। সাধারণ মানুষের মধ্যে একটি ইতিবাচক ধারণা তৈরি হয়েছে। সেটা রাজনীতির চেয়ে সরকারের প্রতি বেশি। ফলে বাজার ঘুরে দাঁড়িয়েছে। কিন্তু এই ঘুরে দাঁড়ানো ধরে রাখতে আন্তরিক উদ্যোগ নিতে হবে। বিশেষ করে অর্থ মন্ত্রণালয়কে। শুধু বসে থাকলে বাজার এ রকম না-ও থাকতে পারে। শেয়ারবাজার নিয়ে বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেছেন বিশেষজ্ঞরা।

up-arrow