Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ২০ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯ ২৩:১২

বাংলাদেশে ঢুকে হামলা

অস্ত্র ফেলে পালাল বিএসএফ, পরে ফেরত

লালমনিরহাট প্রতিনিধি

অস্ত্র ফেলে পালাল বিএসএফ, পরে ফেরত

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী স্থলবন্দর সীমান্ত পার হয়ে এক বাংলাদেশির বাড়িতে হামলা চালিয়েছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর একটি টহল দল। পরে স্থানীয়দের ধাওয়া খেয়ে তারা পালিয়েছে। রংপুর-৬১ বিজিবি (বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ) ব্যাটালিয়নের পরিচালক লে. কর্নেল শরীফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় গতকাল বেলা ১টার দিকে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এর আগে শুক্রবার রাত ৮টার দিকে পাটগ্রামের বুড়িমারী ইউনিয়নের মুংলিবাড়ী সীমান্তের ৮৪১ নম্বর মেইন পিলারের ৬ নম্বর সাব-পিলারের কাছাকাছি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় ও বিজিবি সূত্র জানায়, এ ঘটনায় সীমান্তের ভারতীয় অংশে অতিরিক্ত বিএসএফ সদস্যও মোতায়েন করা হয়েছিল। এদিকে বাংলাদেশ অংশেও অতিরিক্ত বিজিবি সদস্য মোতায়েন করা হয়।

রংপুর-৬১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের বুড়িমারী কোম্পানি কমান্ডার ইব্রাহিম মিয়া বলেন, ‘রাত ৮টার দিকে কয়েকজন গরু চোরকারবারি মুংলিবাড়ী সীমান্ত দিয়ে ভারতে প্রবেশের চেষ্টা করে। কোচবিহার-১৪৮ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের চ্যাংরাবান্ধা কোম্পানি সদরে টহলরত দুজন বিএসএফ সদস্য চোরকারবারিদের ধাওয়া করে। এক পর্যায়ে তারা বাংলাদেশে প্রবেশ করে এবং স্থানীয় মুংলিবাড়ী এলাকার বাসিন্দা আজিমুদ্দিন ওরফে ভুট্টুর (৪৫) বাড়িতে হামলা করে। পরে স্থানীয় লোকজন জোটবদ্ধ হয়ে ধাওয়া দিলে বিএসএফ সদস্যরা পালিয়ে যায়। এ সময় বিএসএফের এক সদস্য একটি শর্টগান ফেলে যায় বলেও জানান তিনি। ইব্রাহিম মিয়া আরও বলেন, ‘এ ঘটনার কড়া প্রতিবাদ জানিয়ে বিএসএফকে পতাকা বৈঠকের আহ্বান জানানো হলে শনিবার বেলা ১টার দিকে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। পতাকা বৈঠকে বাংলাদেশের পক্ষে নেতৃত্ব দেন রংপুর-৬১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের পরিচালক লে. কর্নেল শরীফুল ইসলাম এবং ভারতের পক্ষে নেতৃত্ব দেন কোচবিহার-১৪৮ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের পরিচালক বানাম্বর শাউয়ের। পতাকা বৈঠক শেষে শর্টগানটি ফেরত দেওয়া হয় বলে জানান রংপুর-৬১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের পরিচালক লে. কর্নেল শরীফুল ইসলাম।


আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর