Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ২১ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২০ জানুয়ারি, ২০১৯ ২৩:০৬

মেঘনায় ট্রলারডুবি

ষষ্ঠ দিনে মিলল দুই লাশ, মালিক গ্রেফতার

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি

ষষ্ঠ দিনে মিলল দুই লাশ, মালিক গ্রেফতার

মুন্সীগঞ্জের মেঘনা নদীতে ট্রলারডুবির ষষ্ঠ দিনে দুই ব্যক্তির লাশ পাওয়া গেছে। এ লাশ নিখোঁজ থাকা ২০ শ্রমিকের কারও কিনা- তা তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি। এদিকে নারায়ণগঞ্জ থেকে গ্রেফতার হয়েছেন ওই ট্রলারের মালিক জাকির দেওয়ান।

জানা গেছে, গতকাল বেলা ১২টার দিকে মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার অদূরে চাঁদপুরের ষাটনল এলাকায় ভাসমান অবস্থায় একটি লাশ উদ্ধার করা হয়। এর আগে সকাল ৯টার দিকে গজারিয়া লঞ্চঘাটের কাছে আরেকটি লাশ উদ্ধার হয়। ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি ইউনিটের উপ-সহকারী পরিচালক মোস্তফা মহসিন জানান, মেঘনায় ভেসে উঠলে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল লাশ দুটি উদ্ধার করে। লাশ দুটির পরিচয় জানা যায়নি। দুই লাশ ট্রলারডুবির নিখোঁজ শ্রমিক কিনা-তাও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এ বিষয়ে গজারিয়া থানার ওসি হারুন অর রশীদ জানান, নিখোঁজ শ্রমিকদের আত্মীয়-স্বজনদের খবর দেওয়া হয়েছে। তারা লাশ শনাক্ত করতে পারলে তখন সঠিকভাবে বলা যাবে। এ দিকে মুন্সীগঞ্জের মেঘনা নদীতে ট্রলারডুবির ঘটনায় ট্রলার মালিক জাকির দেওয়ানকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে নারায়ণগঞ্জের পঞ্চবটি এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। জাকির দেওয়ানের বাড়ি নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার আকবর নগর গ্রামে। ট্রলারডুবির ঘটনায় গজারিয়া থানায় দায়ের করা মামলার আসামি তিনি। ওসি মো. হারুন অর রশীদ জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে পঞ্চবটি এলাকা থেকে ট্রলার মালিককে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয় পুলিশ। উল্লেখ্য, গত ১৫ জানুয়ারি ভোর ৪টার দিকে তেলবাহী ট্যাংকারের সঙ্গে সংঘর্ষে মাটিবোঝাই ট্রলারটি ডুবে যায়। এ ঘটনায় ১৮ জানুয়ারি রাতে বেঁচে যাওয়া শ্রমিক শাহ আলম বাদী হয়ে ট্রলার মালিকসহ তিনজনকে আসামি করে গজারিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।


আপনার মন্তব্য