Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২৩:৩৪

শেষ হলো আবাসন মেলা ব্যাপক সাড়া

নিজস্ব প্রতিবেদক

শেষ হলো আবাসন মেলা ব্যাপক সাড়া

ক্রেতা-দর্শনার্থী ও বিক্রেতাদের ভিতর আশা জাগিয়ে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শেষ হলো রিহ্যাব আবাসন মেলা ২০১৯। এবার ৫ দিনব্যাপী আবাসন মেলায় ক্রেতা-দর্শনার্থীদের সরব উপস্থিতিতে খুশি মেলার আয়োজক রিয়েল এস্টেট অ্যান্ড হাউজিং অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ-রিহ্যাব। এ প্রসঙ্গে রিহ্যাব সভাপতি আলমগীর শামসুল আলামিন কাজল  গতকাল বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, এবার মেলায় ব্যাপক সাড়া পেয়েছি। মাত্র ৫ দিনের মেলায় ২৫ হাজারের অধিক ক্রেতা-দর্শনার্থীর অংশগ্রহণ আমাদের ভিতরে যেমন আশা জাগিয়েছে। তেমনি সচেতন ক্রেতাদের মনেও স্বস্তি বইছে। গত ৬ ফেব্রুয়ারি শুরু হওয়া রিহ্যাব আবাসন মেলার পর্দা নেমেছে গতকাল। র‌্যাফেল ড্র অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে মেলার সমাপনী হয়। এ সময়ে সংগঠনটির নেতারা উপস্থিত ছিলেন।  এদিকে দেশের আবাসন খাতের সবচেয়ে বড় আয়োজন এই মেলার সমাপনী দিনে গতকাল দিনভর ক্রেতা-দর্শনার্থীদের ঢল নামে। সকাল থেকেই ভিড় জমান দর্শনার্থীরা। মেলায় বিভিন্ন ব্যাংকের ঋণের স্কিমের দিকে নজরও দিচ্ছেন অনেকেই। মেলায় আসা মুসতারি বিনতে রহমান বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, উত্তরায় আমার একটা জমি আছে। সেখানে ভবন করতে চাই। সেজন্য খোঁজ-খবর নিতে এসেছি। মেলার সমাপনী দিনে দর্শনার্থীদের এমন সাড়া পেয়ে আনন্দিত প্রদর্শনীতে অংশ নেওয়া কোম্পানিগুলো। তারা বিকিকিনির থেকে দর্শনার্থীদের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনের দিকেই বেশি গুরুত্বারোপ করছে। ক্রেতা-দর্শনার্থীদের ব্যাপক উপস্থিতিতে খুশি আয়োজকরাও। এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে রিহ্যাবের সহ-সভাপতি কামাল মাহমুদ গতকাল বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, এবার এত সাড়া পেয়েছি, তা ছিল অপ্রত্যাশিত। বিগত দুই-তিন বছরে এমন সাড়া মেলেনি। অপরদিকে মেলায় অংশ নেওয়া বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের বিক্রয় কর্মীরা জানিয়েছেন, এবার মেলায় ফ্ল্যাটের বুকিং দিলে বিশেষ মূল্য ছাড় রয়েছে। এলাকা ও প্রকল্পের ধরনের ওপর ছাড় নির্ভর করছে। মেলা থেকে নগদ লেনদেনে ১০ শতাংশ মূল্য ছাড় দিচ্ছে কোনো কোনো প্রতিষ্ঠান। রাজধানীর উত্তরা, বসুন্ধরা, মালিবাগ ও বনানীর পাঁচ প্রকল্পের ফ্ল্যাট ও বাণিজ্যিক স্পেস বিক্রিতে অফার রয়েছে। মেলায় কথা হয় রোকসানা আহমেদ নামের এক দর্শনার্থীর সঙ্গে। তিনি বলেন, এবার মেলার পরিবেশ অনেক ভালো। আমি মেলাতে এসে কিছু প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে কথা বলেছি। মেলায় ছোট আকারের ফ্ল্যাটের প্রতিই আগ্রহ বেশি আমার। চাই সাধ্যের মধ্যে মিরপুর এলাকায় একটি ফ্ল্যাট কিনতে। জানা গেছে, মেলায় অভিজাত এলাকাগুলোয় ফ্ল্যাটের দাম কোটি টাকার ওপরে। তবে মধ্যবিত্তদের জন্য আছে মিরপুর, খিলগাঁও, গোপীবাগের মতো এলাকায় ফ্ল্যাট। কোম্পানিগুলো মধ্যবিত্তের জন্য ৫০ লাখের কমেও ফ্ল্যাট দিচ্ছে।


আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর