Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২৫ জুন, ২০১৬ ১০:২৪
আপডেট :
শপিংয়ের সময় করণীয়
অনলাইন ডেস্ক
শপিংয়ের সময় করণীয়

দেখতে দেখতে পবিত্র রমজান মাস প্রায় শেষের দিকে চলে আসছে। রোজা ১৮টি চলে গেছে। রোজার আমেজের মাঝেই ঈদ উদযাপনের অংশ শপিং করতে ব্যর্থ হয়ে পড়েছে দেশের আনাচে কানাচে সব মানুষ। সামনে ঈদ। ফলে বেড়েছে শপিং মলগুলোতে ভিড়। শপিং করতে গিয়ে করণীয় কী তা নিয়েই নিচে আলোচনা করা হলো :

১. সব শপিংমলগুলোতে কাপড় ট্রায়াল দিতে গিয়ে অনেক সময় বিড়ম্বনায় পড়তে হয়। ট্রায়াল রুমগুলোতে বিভিন্নভাবে বসানো থাকে ভিডিও ক্যামেরা। অথবা ট্রায়াল রুমে এমনভাবে ফুটো করে রাখা হয় যার মাধ্যমে বাইরে থেকে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ভিডিও করা যায়। যেমন গত বুধবার ভারতে এক অভিজাত শপিং মলের ট্রায়াল রুমে ভিডিও করার অপরাধে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তাই ট্রায়াল রুমে প্রবেশ করে এর চারপাশ ভালো করে একনজর দেখে নিন।

২. বাচ্চাকাচ্চা সঙ্গে করে নিয়ে এদের ব্যাপারে আলাদা নজর রাখুন। তা না হলো শপিংয়ের মজাটা বিষাদ বা কষ্টে পরিণত হতে পারে। সম্ভব হলে বাচ্চার হাত সবসময় ধরে রাখুন।

৩. নিজের কাছে থাকা স্মার্টফোন ও মানিব্যাগ বা পার্স সযত্নে রাখুন। ভিড়ের মধ্যে যে কেউ আপনার পার্স বা মানি ব্যাগটি মেনে দিতে পারে। বিশেষ করে ঈদের সময় শপিং মলগুলোতে ভিড় বেশি থাকে। তাই এ সময় এসব জিনিস চুরি যাওয়াটা অনেকটা সময়। তাই নিজের দিকে ও আশপাশের পরিবেশের দিকে খেয়াল রাখুন।

৪. লিফট ব্যবহারে সাবধান থাকুন। যদি মনে হয় যে, কোনো শপিং মলের লিফট দুর্বল তাহলে তা ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন। তা না হলে বড় ধরনের দুর্ঘটনার শিকার হতে পারেন। যেমন গতকাল উত্তরার একটি শপিং মলের লিফট ছিড়ে আগুন লেগে নারী ও শিশুসহ কমপক্ষে ৫ ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। লিফট দুর্বল থাকার কারণেই এ দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে বিশেষজ্ঞদের মত।

৫. শপিং করতে যাওয়ার সময় যানবাহন ব্যবহারের ক্ষেত্রে সাবধানী হোন। বিশেষ করে বেশি রাতে দূরের কোনো শপিংমল থেকে শপিং করে ফেরার সময় অটোরিকসা বা ভাড়ায় চালিত ছোট যান ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন। যথাসম্ভব পাবলিক বাস ব্যবহার করুন। কারণ অটোরিকশায় চড়ার সময় ছিনতাইয়ের শিকার হতে পারেন কারণ ঈদ সামনে রেখে এ ধরনের ঘটনা বেড়ে যায়।


বিডি-প্রতিদিন/২৫ জুন ২০১৬/শরীফ

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow