Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৬:০৫
অল্প পরিমাণ খেয়েও ক্ষুধা মুক্ত থাকার উপায়
অনলাইন ডেস্ক
অল্প পরিমাণ খেয়েও ক্ষুধা মুক্ত থাকার উপায়
ফাইল ছবি

আপনার খাওয়া শেষ হয়ে যাওয়ার পরেও যদি আপনার ক্ষুধা থেকে যায় তাহলে আপনি কি খাচ্ছেন তার দিকে নজর দেয়া প্রয়োজন। পুষ্টিকর খাবার খাওয়া গুরুত্বপূর্ণ। সঠিক সময়ে সঠিক খাবার খাওয়া শুধু আপনার প্রাত্যহিক পুষ্টির চাহিদাই পূরণ করবে না সারাদিনে আপনার পেটভরা রাখতেও সাহায্য করবে। এর ফলে জাংক ফুড খাওয়া থেকেও দূরে থাকতে পারবেন। গবেষণায় জানা যায় যে, যারা প্রোটিন বেশি পরিমাণে গ্রহণ করেন তাদের দীর্ঘক্ষণ পেট ভরা থাকে। তাই বলে শুধু প্রোটিন খেলেই হবেনা। শরীরের জন্য প্রোটিন, কার্বোহাইড্রেট, ফাইবার এবং  ফ্যাট এর ভারসাম্য প্রয়োজন। যে খাবারগুলো কম করে খেলেও দীর্ঘক্ষণ পেট ভরা থাকে সেগুলো হচ্ছে :    

১। ডিম

ডিমে উচ্চমাত্রার প্রোটিন থাকে এবং দীর্ঘক্ষণ পেট ভরা থাকতে সাহায্য করে। এছাড়াও এতে অত্যাবশ্যকীয় খনিজ, ভিটামিন ও ফ্যাট থাকে যা এনার্জি প্রদানের জন্য প্রয়োজনীয়। ডিম একটি স্বাস্থ্যকর খাবার।

২। মাছ

মাছ শুধু ওমেগা ৩ ফ্যাটি এসিডেই সমৃদ্ধ নয় বরং এতে প্রোটিন ও থাকে যা অনেকক্ষণ পেট ভরা রাখতে সাহায্য করে। দুপুরে বা রাতে আপনার পছন্দের খাবারের সাথে মাছ খান। এর ফলে শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় পুষ্টি পাওয়ার সাথে সাথে ক্ষুধামুক্ত থাকতেও সাহায্য করবে আপনাকে।

৩। অঙ্কুরিত বীজ এবং মটরশুঁটি  

যারা সবজি খেতে পছন্দ করেন তাদের জন্য অঙ্কুরিত বীজ এবং মটরশুঁটি হতে পারে প্রোটিনের চমৎকার উৎস। এগুলো আপনাকে পেট ভরা রাখার অনুভূতি দেবে এবং অনিয়মিত খাওয়া থেকেও আপনাকে দূরে থাকতে সাহায্য করবে।  

৪। সয়া পণ্য

সয়া পণ্য যেমন সয়া দুধে অসাধারণ পুষ্টি উপাদান থাকে যা আপনাকে স্বাস্থ্যবান থাকতে সাহায্য করে। এতে উচ্চমাত্রার প্রোটিন এবং কার্বোহাইড্রেট ও থাকে। এতে খুব কম পরিমাণে স্যাচুরেটেড  ফ্যাট থাকে এবং কোলেস্টেরল থাকেই না।

৫। দুগ্ধজাত পণ্য

পনির, মাখন, দই ও মাঠার মত দুগ্ধ জাতীয় পণ্য ক্যালসিয়াম, প্রোটিন এবং কার্বোহাইড্রেটের উৎস। আপনার খাদ্য তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করুন এই খাবারগুলো।

৬। মুরগীর মাংস

মুরগীর মাংস প্রোটিনের চমৎকার উৎস। এতে ক্যালরির পরিমাণ কম থাকে বলে খাওয়াও নিরাপদ।

৭। পানি

পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি পান করুন। দিনের প্রধান খাবার খাওয়ার আগে এক গ্লাস পানি পান করুন।    একটি গবেষণায় দেখা গেছে যে, অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে যারা কোন বেলার খাবার খাওয়ার আগে ২ কাপ পানি পান করেছেন তারা অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে যারা পানি পান করেননি তাদের তুলনায় ৭৫-৯০ ক্যালরি কম গ্রহণ করেছেন। নিউ ইয়র্কের হেরিসনের রেজিস্টার্ড ডায়েটেশিয়ান এলিজাবেথ ডি রবারটিস বলেন, “H2O আমাদের শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ, অস্থি সন্ধি, পেশী এবং পরিপাক তন্ত্রকে ভালোভাবে কাজ করতে সাহায্য করে। পানি ক্ষুধা দূর করতেও সাহায্য করে”।

খাবার ধীরে ধীরে ও ভালো করে চিবিয়ে খেলে তৃপ্তি পাওয়া যায় এবং কম খেয়েও পেট ভরে যায়। মসলাযুক্ত খাবার খেলে ক্ষুধা কমে এবং বিপাক উদ্দীপ্ত হয়। গ্রিনটিতে যে ফাইটোনিউট্রিয়েন্ট থাকে তা তৃপ্তির হরমোনের মাত্রা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। খাওয়ার পড়ে পুদিনা চা খেলে তা মস্তিষ্কে আপনার খাওয়া হয়ে গেছে এই বার্তা পাঠায়।    

 

বিডি-প্রতিদিন/তাফসীর

 

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow