Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭

প্রকাশ : ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৫:৩৮
আপডেট :
দ্রুত ঘুম থেকে ওঠার অভ্যাস করবেন যেভাবে
অনলাইন ডেস্ক
দ্রুত ঘুম থেকে ওঠার অভ্যাস করবেন যেভাবে

মানুষ চাইলেই তার অভ্যাস পরিবর্তন করতে পারে। ঠিক তেমনিভাবে দেরিতে ঘুম থেকে ওঠার অভ্যাসও যে কেউ চাইলেই পরিবর্তন করতে পারে। এর জন্য তাকে কিছু পরিবর্তন আনতে হবে। তবে সবচেয়ে ভালো হয় যদি ছোটবেলা থেকেই তাড়াতাড়ি ঘুম থেকে ওঠার অভ্যাস করা যায়। কীভাবে এ অভ্যাস করা যায় সে বিষয়ে সহজ কিছু কথা এখানে মনে করিয়ে দেওয়া হল-

ক্যাফেইন গ্রহণ কমিয়ে দিন :
কম পরিমাণ ক্যাফেইন গ্রহণের অর্থ আপনি পেঁচা নন। তাই ক্যাফেইন আছে এমন খাবার ও পানীয় গ্রহণ কমিয়ে দিন। দেখুন আপনার ঘুমানো কত সহজ হয়ে গেছে।

তাড়াতাড়ি ঘুমান:
রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমাতে যাওয়ার নগদ ফল হল পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুমাতে পারা। রাত জেগে ফেসবুকিং বা টেলিভিশন দেখার কোনো মানে নেই। এর মধ্যে উপকারি কিছু নেই। এ ছাড়া এর স্বাস্থ্যগত প্রভাব ভালো কিছু নয়। দেরিতে ঘুমানোর অভ্যাস ত্যাগ করার আগে নিজেকে গভীরভাবে প্রশ্ন করুন- দেরিতে ঘুমানোর পক্ষে আপনার যুক্তিগুলো কী কী। এবার সেই যুক্তি খণ্ডন করুন।

রুটিনে সিরিয়াস :
উপরে উপরে মনে হতে পারে বিশৃঙ্খলা জীবনের প্রাণশক্তি। কিন্তু আপনার দেহ-মন ভালোবাসে রুটিন। এর কারণে আমরা নির্দিষ্ট সময়ে খাবার খাই ও ঘুমাতে যাই। সে মোতাবেক আমাদের শরীর কাজ করে। প্রতিদিন একই সময়ে ঘুমাতে যাওয়ার মধ্যে নানা সুবিধা আছে। তাড়াতাড়ি ঘুমানো ও জেগে উঠার বিষয়ে সর্তক থাকুন।

প্রেরণা জারি রাখুন :
কেন আপনি সকালে ঘুম থেকে উঠতে চান? তার নিশ্চয় কোনো কারণ আছে। সকালের কাজগুলো নিয়ে একবার চিন্তা করুন। তাহলে বুঝতে পারবেন কেন আপনাকে সকালে উঠতে হবে। এ ছাড়া এর স্বাস্থ্যগত উপকারিতা মাথায় রাখুন। ব্যায়াম হতে পারে প্রধান কারণ। সকালের হাঁটা আপনাকে দেবে বাড়তি শক্তি ও মনোযোগ। সকালে বায়ু আপনাকে প্রাণবন্ত করে। এ ছাড়া সারাদিনের পরিকল্পনার জন্য ভোর ভালো সময়। এ সব বিষয় মাথায় রাখুন। তাহলে সকালে উঠা সহজ হবে।


বিডি প্রতিদিন/২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬/হিমেল

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow